চীনই এখন বিশ্বের সবচেয়ে ধনী দেশ

- Advertisement -
চীনের কাছে হার মানতে হলো যুক্তরাষ্ট্রকে

অবশেষে চীনের কাছে হার মানতে হলো যুক্তরাষ্ট্রকে। প্রথমবারের মতো যুক্তরাষ্ট্রকে ছাড়িয়ে বিশ্বের সবচেয়ে ধনী এখন চীন, যা নিয়ে অস্বস্তিতে জো বাইডেন সরকার।

এমনিতেই এই ডেমোক্র্যাট নেতার জনপ্রিয়তায় ভাটা পড়েছে। তার ওপর এমন সংবাদ আগামীতে কঠিন করে তুলবে ৭৯ বছর বয়সী বাইডেনের রাজনীতি, যা নিয়ে উদ্বিগ্ন মার্কিনরা। সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তাহলে কি ঠিকই বলেছিলেন? চীন পৃথিবীতে করোনা ছড়িয়ে বিশ্ববাজারে নিজেদের আরও শক্ত অবস্থানে নিয়ে যেতে চায়। অবশেষে তার কথাই ফলে গেল। যুক্তরাষ্ট্রকে হটিয়ে চীন এখন বিশ্বের সবচেয়ে ধনী দেশ। করোনা মোকাবিলায় হিমশিম দশা, বেকারত্ব, জিনিসপত্রের দাম বৃদ্ধি তথা অর্থনৈতিক মন্দায় যুক্তরাষ্ট্র এখন দুই নম্বরে নেমে গেছে।

- Advertisement -

বৈশ্বিক সম্পদের দিক থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে ছাড়িয়ে বিশ্বের সবচেয়ে ধনী দেশ এখন চীন। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক পরামর্শদাতা প্রতিষ্ঠান ম্যাককিনেসি অ্যান্ড কোম্পানির একটি গবেষণায় এমন তথ্য উঠে এসেছে। ম্যানেজমেন্ট কানসালটিং ফার্ম ম্যাককিনেসি অ্যান্ড কোম্পানির গবেষণ প্রতিবেদন বলছে, গত দুই দশকে বৈশ্বিক সম্পদ তিন গুণ বেড়েছে, যেখানে নেতৃত্ব দিচ্ছে চীন। মোট বৈশ্বিক আয়ের ৬০ শতাংশের বেশি যে ১০টি দেশের দখলে রয়েছে। সেসব দেশের জাতীয় উদ্বৃত্ত বিশ্লেষণ করে এই প্রতিবেদনটি তৈরি করা হয়েছে।

গবেষণা প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০০০ সালে বিশ্বের নিট সম্পদের মূল্য ছিল ১৫৬ ট্রিলিয়ন। ২০২০ সালে এটি বেড়ে ৫১৪ ট্রিলিয়ন ডলারে দাঁড়িয়েছে। গত দুই দশকে বিশ্বে যে পরিমাণ সম্পদ বেড়েছে, তার প্রায় তিন ভাগের এক ভাগই চীনের। চীনের তুলনায় এগোতে পারেনি যুক্তরাষ্ট্র। পাল্লা দিতে না পারার আঁচ এখন সহ্য করতে হবে জো বাইডেন প্রশাসনকে, এমনটাই বলছেন বিশ্লেষকরা।
চীনের প্রতিপক্ষ যুক্তরাষ্ট্র গত দুই দশকে নিট সম্পদের মূল্য দ্বিগুণের বেশি বেড়ে হয়েছে ৯০ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার। কিন্তু এটি প্রতিযোগিতার বাজারে চীনকে টেক্কা দেওয়ার মতো নয়, যা নিয়ে অস্বস্তিতে জো বাইডেন সরকার। এমনিতেই এই ডেমোক্র্যাট নেতার জনপ্রিয়তায় ইদানীং ব্যাপক ভাটা পড়েছে। আসন্ন নির্বাচনে যার প্রভাব পড়বে বলেও মনে করা হচ্ছে।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles