20.9 C
Toronto
মঙ্গলবার, জুলাই ১৬, ২০২৪

কেউ যেন আপনাদের মাধ্যমে প্রভাবিত না হয় : মুশতাককে আদালত

কেউ যেন আপনাদের মাধ্যমে প্রভাবিত না হয় : মুশতাককে আদালত
ছবি সংগৃহীত

রাজধানীর মতিঝিলের আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের গভর্নিং বডির দাতা সদস্য খন্দকার মুশতাক আহমেদের উদ্দেশে আদালত বলেছেন, নিজেদের সফল দম্পতি হিসেবে সোশ্যাল মিডিয়ায় দেখানো থেকে বিরত থাকবেন। আপনাদের মাধ্যমে আর কেউ যাতে অ্যাফেক্টেড (প্রভাবিত) না হয়।

বৃহস্পতিবার মামলার দুই আসামি খন্দকার মুশতাক আহমেদ ও অধ্যক্ষ ফাওজিয়া রাশেদীর অব্যাহতির সুপারিশ করে চূড়ান্ত প্রতিবেদন (ফাইনাল রিপোর্ট) শুনানিকালে আদালত এ মন্তব্য করেন। ধর্ষণের অভিযোগে সিনথিয়া ইসলাম তিশার বাবা সাইফুল ইসলাম গত বছর এ মামলা করেন। এদিন শুনানিতে বাদীপক্ষের আইনজীবী ওমর ফারুক ফারুকী নারাজি বিষয়ে শুনানি করেন।

- Advertisement -

তিনি বলেন, ‘আসামি মুশতাক আহমেদ বাদীকে মামলা তুলে নিতে বিভিন্নভাবে হুমকি দিচ্ছেন। কাপল (দম্পতি) হিসেবে তারা সমাজে খারাপ দৃষ্টান্ত সৃষ্টি করছেন। সমাজে দেখানোর চেষ্টা করছেন তারা সফল কাপল, যাতে সমাজে খারাপ ইফেক্ট পড়ছে। এতে তরুণ প্রজন্মের মধ্যে খারাপ মনোভাব তৈরি হচ্ছে। আসামি ভিকটিমকে বিভিন্নভাবে প্রলোভন দেখিয়ে জোরপূর্বক বিয়ে করেছেন। সমাজে যাতে এ ধরনের উদাহরণ সৃষ্টি না তৈরি হয়, সেজন্য আদালতের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।’

এর বিরোধিতা করে আসামিপক্ষের আইনজীবী খোন্দকার হাসান শাহরিয়ার বলেন, ‘বাদীকে হুমকি দেওয়া হচ্ছে না। আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী তারা আদালতে হাজির হয়েছেন। আসামিদের স্থায়ী জামিনের আবেদন করছি।’ পরে উভয়পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক বলেন, ‘এরপর বাদীকে কোনো হুমকি দেওয়া হলে আপনার (মুশতাক) বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সোশ্যাল মিডিয়াতে যেন না দেখানো হয় আপনারা সফল কাপল। সমাজের কেউ যেন এর দ্বারা অ্যাফেক্টেড না হয়।’

তখন আসামিপক্ষের আইনজীবী বলেন, ‘আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী কোনো প্রকার ভিডিও-বার্তা আসামিরা দেননি। এমনকি টিকটকও করেন না তারা। তখন বিচারক বলেন, টিকটক করলে সমস্যা নেই। সমাজে খারাপ ইফেক্ট পড়ে এমন ভিডিও না করলে হবে।’ এরপর বিচারক আসামিদের স্থায়ী জামিনের আবেদন মঞ্জুর করেন। আর মামলাটি পুলিশ ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) তদন্তের নির্দেশ দেন।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles