9.5 C
Toronto
বুধবার, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২৪

এগুলো হলো দলীয় শাসন

এগুলো হলো দলীয় শাসন
টাঙ্গাইল শাড়ীর স্বত্ব ভারতীয়রা নিয়ে গেছে

একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে আবারও ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। এবার স্বামীকে আটকে রেখে স্ত্রীকে ধর্ষণ করা হয়েছে। যে ব্যক্তি ধর্ষণ করেছে তার একটি রাজনৈতিক পরিচয় রয়েছে। সেই পরিচয়ের সুবাদে আমাদের প্রতিক্রিয়া এবং বিচার বিবেচনা প্রকাশ পায়। চলন্ত বাসের মধ্যেও অনেক সময় ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। একটা সমাজে অপরাধ ঘটতেই পারে কিন্তু তার পুনরাবৃত্তি নির্ভর করে অপরাধীর পরিচয় নির্বিশেষে শাস্তি দেবার উপর। ধরুন এরশাদের আমলে একটা ধর্ষণ হলো, বেগম খালেদা জিয়ার সরকারের আমলে একই রকম একটা ধর্ষনের অপরাধ সংগঠিত হলো আর বর্তমান সরকারের আমলেও একই ঘটনা ঘটলো।

দেখবেন যারা এরশাদের আমলের ঘটনার জন্যে যে উচ্চকিত স্বরে প্রতিবাদে সামিল হবে তার অর্ধেক হবে বেগম জিয়ার আমলে। আবার যারা বেগম জিয়ার আমলে নিন্দার প্রতিবাদের তুবরী ছুটিয়ে ফেললো, বর্তমান সরকারের আমলে একই ঘটনায় তারা পাথরের মত নিশ্চুপ! ঘটনা বা অপরাধ কিন্তু একই। হয়তো আগের চেয়েও ভয়াবহ। তবুও একশ্রেনীর বিবৃতি ঠিকাদার তাদের প্রতিক্রিয়া প্রকাশ করবে তিনি নিজে কোন সরকারের তাঁবেদার তার উপর নির্ভর করে। মুলত এর কারণ দেশে কখনোই আইনের শাসন ছিল না এবং এখনো নেই। যা কিছু আমরা দেখি এগুলো হলো দলীয় শাসন। গোষ্ঠীর শাসন।

- Advertisement -

একশ্রেণির লুটেরাদের শাসন। সরকার পরিবর্তন হয় আর এক লুটেরা গোষ্ঠীর হাত থেকে ক্ষমতা অপর লুটেরা গোষ্ঠীর কাছে চলে যায়। মুলত সমাজটা পুরোপুরি নৈতিকভাবে ধ্বংস হয়ে গেছে। টাঙ্গাইল শাড়ীর স্বত্ব ভারতীয়রা নিয়ে গেছে। নকশী কাঁথা আগেই গেছে। সীমান্তে পাখীর মত গুলি করে মানুষ মারা হয়। আচ্ছা ধরুন এই টাঙ্গাইল শাড়ীর ঘটনাটা অন্য সরকারের আমলে যদি ঘটতো, আজকের তথাকথিত এডিটরস গিল্ডের প্রতিক্রিয়া কী হতো? মানুষ, নিজের ভবিষ্যৎ প্রজন্মের স্বার্থে হলেও নিজের বিবেক জাগ্রত করুন। দাসত্বগিরি আর কত?

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles