27.7 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, জুন ২০, ২০২৪

‘আমার বয়স ইসরাইলের চেয়ে বেশি’ বলা দাদিমা স্নাইপারের গুলিতে নিহত

‘আমার বয়স ইসরাইলের চেয়ে বেশি’ বলা দাদিমা স্নাইপারের গুলিতে নিহত
ফিলিস্তিনি বৃদ্ধা হাদিয়া নাসা

গাজা যুদ্ধের শুরুতে ‘আমার বয়স ইসরাইল রাষ্ট্রের চেয়ে বেশি’ বলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছিলেন এক ফিলিস্তিনি বৃদ্ধা হাদিয়া নাসার (৭৯)।

ইসরাইল সৃষ্টির ৪ বছর আগে জন্মগ্রহণ করেছিলেন তিনি। সম্প্রতি ইসরাইলি স্নাইপারের সেনার গুলিতে নিহত হয়েছেন এই দাদিমা। হাদিয়া নাসারকে দেখা গিয়েছিল ফিলিস্তিনি ফটো সাংবাদিক সালেহ আল জাফরাভির করা একটি ভিডিওতে।

- Advertisement -

৭ ডিসেম্বর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম এক্সে হাদিয়া নাসারের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আল জাফরাভি। হাদিয়া নাসারের সদর দরজার বাইরে একজন ইসরাইলি স্নাইপার তাকে হত্যা করেছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

আল জাফরাভি লিখেছেন, ‘আপনি শহিদ হয়েছেন। আল্লাহ আপনার প্রতি রহম করুন। জান্নাতকে আপনার বিশ্রামের স্থান করুন।’

আল জাফরাভির চাচাতো ভাই হাদিয়ার প্রতিবেশী ছিলেন। সেই প্রতিবেশিই আলজাজিরাকে জানান- ইসরাইলের এক স্নাইপার সেনা দাদিমাকে তার বাড়ির দরজার সামনে থেকে গুলি করে হত্যা করেছে।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে হাদিয়া নাসারের আইডি কার্ড ধরে ওই সাংবাদিক বলেছিলেন, ‘আপনি হাজ্জাহ হাদিয়া ১৯৪৪ সালে জন্মগ্রহণ করেছিলেন, এর অর্থ আপনি ইসরাইলের চেয়ে বয়সে বড়।’

জবাবে হাদিয়া নাসার বলেছিলেন, ‘অবশ্যই, অবশ্যই। আমি এত বছর ধরে ফিলিস্তিনি ভূমিকে আমার হৃদয়ে ধরে রেখেছি।’

আল জাফরাভির সঙ্গে কথোপকথনের ভিডিওটি প্রকাশ করার পর সবুজ চোখের এই দাদিমা লাখ লাখ মানুষের হৃদয় জয় করে নেন।

অক্টোবরে তার বাড়িতে বোমা হামলা চালিয়েছিল ইসরাইল। সে সময় কিছুটা আহত হলেও এই হামলা থেকে বেঁচে গিয়েছিলেন তিনি। হামলার পর গাজার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। সে সময়ই ওই সাংবাদিকের সঙ্গে তার দেখা হয়।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles