20.6 C
Toronto
মঙ্গলবার, জুলাই ১৬, ২০২৪

শিষ্টাচারের এতো অভাব কেন !!

শিষ্টাচারের এতো অভাব কেন !!
শিষ্ট্যচারের অভাব কি আগে ছিল না

শিষ্ট্যচারের অভাব কি আগে ছিল না, নাকি FB না থাকার কারণে জানতাম না, নাকি মানুষ ভুলে গেছে। ইদানিং ইনবক্সে মানুষের ফ্রেনড রিকোয়েস্ট, চাকুরীর খবর, ইমিগ্রেশনের খবর, কানাডার পড়ালেখা বা ভিসার খবর ইত্যাদি বিভিন্ন বিষয়ে নিয়ে মানুষ জানতে চায় যদিও ঐসব বেপারে আমি এক্সপার্ট নোই, সেটা ভালো কথা কিন্তু এদের ৯০%ই বেশির এই জানতে চাওয়ার বা FR পাঠানোর ধরণ এমন Mannerless যে মাঝে মাঝে মনে হয় এরা কি কোনো পরিবারে বড়ো হয়েছে। এদের অনেকেই আবার কিন্তু অনেক শিক্ষিত ডিগ্রিধারী বা ব্যাবসায়ী আছেন।

২/১টি উদাহরণ ::
“He বা Hi” অন্য কিছু না। “can you help me.” Give me a job” ” I want to Canada”, Call me” “newcomer or international student, need job” ইত্যাদি। কেউ কেউ বেশ সুন্দর করে তাদের পরিচয় দিয়ে, যথাযত সম্মোধন করে তারপর জানতে চান, সেটি ভালো লাগে এবং সময় থাকলে রেসপন্স করতেও ইচ্ছা হয়। কিন্তু ওই সমস্ত short-cut mannerless কথাবার্তার আপনি কি রেসপন্স করবেন।

- Advertisement -

আর বাবা আপনি কিছু জানতে চাইছেন, সেখানে আমার যদি সেটি জানা থাকে তাহলে আপনাকে সেটি জানাতে আমার সময় ব্যয় করতে হবে, কিন্তু সেক্ষেত্রে আপনি কি একটু সময় ব্যয় করে জাস্ট ২/৩টা লাইনে যথাযত সম্মোধন করে আপনার পরিচয় দিয়ে আপনার প্রয়জনের কথা বলেবেন না !!!

এখন ধরুন আমাকে কেউ বললো তার অফিসে একজন লোক লাগবে, সেখানে আমি তো আপনার মতো ওই রকম Short-Cut, Mannerless মানুষকে পাঠাবো না, পাঠালে তো আপনি তার প্রতিষ্ঠানের ১৩ তা বাজিয়ে দিবেন।

আপনি যার কাছেই কোনো প্রয়োজন লিখুন না কেন বা যাকেই FR পাঠান না কেন, জাস্ট সিম্পল শিষ্ঠচারটা মেইনটেইন করুন। আপনাকে ভাষাবিদ হওয়ার দরকার নেই, আমি নিজেও তো দেখেন এখানে বাংলা ইংরেজি মিশিয়ে লিখেছি।

আমাদের অনেকের (সবার না) পিছিয়ে থাকার এইটা একটা অন্যতম কারণ।
আমার কথায় কেউ মনোক্ষুন্ন হলে দুঃখিত।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles