18.2 C
Toronto
মঙ্গলবার, মে ২১, ২০২৪

নবম শ্রেণির ছাত্রকে তুলে নিয়ে সহপাঠীর সঙ্গে বিয়ে

নবম শ্রেণির ছাত্রকে তুলে নিয়ে সহপাঠীর সঙ্গে বিয়ে
প্রতীকী ছবি

কুমিল্লার নাঙ্গলকোট উপজেলার মক্রবপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র নেছার উদ্দিনকে (১৫) তুলে নিয়ে সহপাঠী মাইশা আক্তার ফারিয়ার (১৫) সঙ্গে জোরপূবক বিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ফারিয়ার বাবা মোশাররফ হোসেনের বিরুদ্ধে।

জানা যায়, উপজেলার মক্রবপুর ইউপির মক্রবপুর গ্রামের হাজি বাড়ির প্রবাসী ওমর ফারুকের ছেলে নেছার উদ্দিন। বৃহস্পতিবার নেছারের মামার দোকান থেকে ৩টি মোবাইল সেট, মোটরসাইকেল ও নগদ লক্ষাধিক টাকাসহ নেছারকে তুলে নিয়ে গিয়ে ২ দিন আটক করে রাখে। পরে শনিবার সকালে একই গ্রামের মহুরি মোশাররফ হোসেন তার মেয়ে মাইশা আক্তার ফারিয়ার সঙ্গে ১০ লাখ টাকা দেনমোহর ধার্য করে জোরপূর্বক বিয়ে দেয়।

- Advertisement -

কিশোর-কিশোরীর এমন বিয়ের খবরে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

শিক্ষার্থী নেছার উদ্দিনের মামা মোহাম্মদ হিরন ও নেছারের মা শাহেনা আক্তার মুক্তা বলেন, নেছার অপ্রাপ্তবয়স্ক ছেলে, মাত্র নবম শ্রেণিতে পড়ে, তাকে তুলে নিয়ে জোর পূর্বক বিয়ে দেওয়া হয়েছে।

অভিযুক্ত মহুরি মোশাররফ হোসেন বলেন, আমার মেয়ের সঙ্গে নেছারের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। যার ফলে তারা দুইজন বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। আমি গতরাতে ওদেরকে হাজির করে দুই পক্ষ মিলে বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা করি। কিন্তু ছেলের মামা দেনমোহর নিয়ে কথা কাটাকাটি করে চলে যায়। পরে তাদের বিয়ে হয়।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles