26.4 C
Toronto
মঙ্গলবার, মে ২১, ২০২৪

১৮ মাস ধরে নারীর পেটে ছিল অস্ত্রোপচারের সরঞ্জাম!

১৮ মাস ধরে নারীর পেটে ছিল অস্ত্রোপচারের সরঞ্জাম!

সন্তানের জন্মের সময় চিকিৎসকের অসাবধানতায় পেটে ঢুকে গিয়েছিল অস্ত্রোপচারের সরঞ্জাম। এরপর ১৮ মাস ধরে নারীর পেটের ভেতরে আটকে সেই সরঞ্জাম। নিউজিল্যান্ডের অকল্যান্ডে এই চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে। সরকারি হাসপাতালের চিকিৎসকদের বিরুদ্ধে কর্তব্যে গাফিলতির অভিযোগ তুলেছেন ওই নারীর পরিবারের সদস্যরা।

- Advertisement -

সংবাদপত্রের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ওই সরঞ্জামের সাহায্য অস্ত্রোপচারের সময় কাটা জায়গা ধরে রাখা হয়। ১৮ মাস আগে সন্তানের জন্ম দেওয়ার সময় সরঞ্জামটি ওই নারীর পেটে থেকে যায়। এরপর ১৮ মাস ধরে প্রচণ্ড ব্যথায় ভুগছিলেন তিনি। সম্প্রতি তাকে পেটের পরীক্ষা করাতে বলেন চিকিৎসকরা।

এক্স-রেতে কোনো কিছু ধরা না পড়লেও সিটি স্ক্যানে দেখা যায়, খাবার থালার মতো দেখতে সরঞ্জামটি তার পেটের মধ্যে আটকে রয়েছে।
এদিকে সেই সরঞ্জাম কিভাবে পেটের মধ্যে গেল, তা নিয়ে কোনো ব্যাখ্যা দিতে পারেননি ওই সরকারি হাসপাতালের চিকিৎসকরা। তবে নিউজিল্যান্ডের স্বাস্থ্য ও প্রতিবন্ধী কমিশনার মোরাগ ম্যাকডয়েলের প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চিকিৎসকদের অসাবধানতার কারণেই যন্ত্রটি নারীর পেটে চলে গিয়েছিল।

ম্যাকডয়েলের মতে, দুই বছর আগেও অকল্যান্ডের ওই হাসপাতালে এক রোগীর পেটের ভেতরে ভুলবশত একটি অস্ত্রোপচারের সরঞ্জাম রেখে দিয়েছিলেন চিকিৎসকরা।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা, এনডিটিভি

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles