মৃত্যুপুরি রাশিয়ায় এক মাসে করোনায় মৃত্যু ৪৪ হাজারের বেশি

- Advertisement -

মৃত্যু পুরি রাশিয়া। আর তার কারণ করোনা। হাঁ এটাই সত্যি। রাশিয়ার সরকারি পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত মাসে (সেপ্টেম্বর) কোভিডে আক্রান্ত হয়ে ৪৪,২৬৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ যাবত্‍ কালে এক মাসে এত মৃত্যু দেখেনি ভ্লাদিমির পুতিনের দেশ। আর এর ফলে ফের লকডাউন ছাড়া উপাই নেই বলে মনে করছেন সে দেশের বিশেষজ্ঞরা।

- Advertisement -

জনসংখ্যাতত্ত্ব নিয়ে কাজ করেন রুশ বিশেষজ্ঞ অ্যালেক্সেই রাকশা। তিনি বলেন, ”কোভিডের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে প্রশাসন যদি এখনও মানসিকতা না বদলায়, নতুন করে সংক্রমণ ঢেউ আছড়ে পড়বে দেশে। সত্যিকারে লকডাউন জারি করতে হবে অবিলম্বে। করোনা-বিধি নিয়ে যথেষ্ট কড়াকড়ি প্রয়োজন। অল্প সময়ের জন্য নয়, বেশ কিছু সপ্তাহের জন্য লকডাউন জরুরি।”

আরও পড়ুন : জাপানি রাজকুমারীর সঙ্গে প্রেমে পাশ করে আইনে ফেল!

তাঁর পরামর্শ, অবিলম্বে টিকাকরণ বাড়ানো হোক। আগের মতো ফের কঠোর করোনা-বিধি জারি হোক। আরও একটি বিষয় হল, দেশজ কোভিড-টিকা থাকা সত্ত্বেও রাশিয়ায় মাত্র ৪৭ শতাংশ বাসিন্দার এখনও পর্যন্ত টিকাকরণ হয়েছে। টিকাকরণে যে খামতি রয়েছে, তা মেনে নিয়েছে সরকারও। দেশের উপ-প্রধানমন্ত্রী তাতিয়ানা গোলিকোভা।

তিনি বলেন, ”কোভিড আক্রান্ত হয়ে যে ভাবে দেশে মৃত্যু বাড়ছে, তা খুবই চিন্তার। টিকাকরণ হার সম্প্রতি কিছুটা বেড়েছে, কিন্তু সেটা একেবারেই যথেষ্ট নয়।” আসলে করোনার কারণে প্রথম লকডাউনে সেদেশের অর্থনীতিতে ভাল প্রভাব পরেছিল আর সেই কারণে সরকার লকডাউনের পথে যেতে চাইছেনা বলে ধারনা বিশেষজ্ঞদের।

কিন্তু এই অবস্থা চলতে থাকলে রাশিয়ার অবস্থা যে আরও খারাপ হবে সে কথা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। তাই অনেক ক্ষতির মধ্যেও নাগরিকদের বাঁচাতে লকডাউনই এক মাত্র পর এখন পুতিন সরকারের।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles