9.7 C
Toronto
সোমবার, এপ্রিল ১৫, ২০২৪

তারেকের বক্তব্য অপসারণ শুরু করেছে বিটিআরসি

তারেকের বক্তব্য অপসারণ শুরু করেছে বিটিআরসি

বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি) হাইকোর্টের নির্দেশে অনলাইন থেকে তারেক রহমানের বক্তব্য অপসারণের কাজ শুরু করেছে। আজ মঙ্গলবার বিষয়টি গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন বিটিআরসির আইনজীবী খোন্দকার রেজা ই রাকিব।

- Advertisement -

তিনি বলেন, ‘হাইকোর্ট গতকাল তারেক রহমানের বক্তব্য অনলাইন থেকে সরিয়ে ফেলার নির্দেশ দিয়েছেন। আমরা গতকালই ল’ইয়ার সার্টিফিকেট পেয়েছি। বিটিআরসির একটি টিম তারেক রহমানের বক্তব্য অনলাইন থেকে অপসারণের কাজ শুরু করেছে। আশা করছি কয়েকদিনের মধ্যে তারেকের সব বক্তব্য অনলাইন থেকে অপসারণ সম্ভব হবে। আমরা হাইকোর্টের আদেশের সার্টিফায়েড কপির জন্য অপেক্ষা করছি।’

এর আগে সোমবার তারেক রহমানের বক্তব্য সরাতে বিটিআরসিকে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। বিচারপতি মো. খসরুজ্জামান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দিয়েছেন। ওই দিন সকালে পলাতক উল্লেখ করে তারেক রহমানের সাম্প্রতিক দেয়া সব বক্তব্য ফেসবুক, ইউটিউব থেকে সরানোর নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে আবেদন করা হয়। একইসঙ্গে তার বক্তব্য প্রচার বন্ধ করতে বিটিআরসির প্রতি নির্দেশনা চাওয়া হয়েছিল।

উল্লেখ্য, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সাম্প্রতিক সব বক্তব্য অনলাইন থেকে সরানোর নির্দেশ দেওয়াকে কেন্দ্র করে গতকাল হাইকোর্টের এজলাস কক্ষে বিএনপিপন্থী ও আওয়ামীপন্থী আইনজীবীদের মধ্যে টানা ৩০ মিনিটের মতো হইচই ও হট্টগোলের ঘটনা ঘটে। এ সময় কোর্টে অচলাবস্থার সৃষ্টি হলে এক পর্যায়ে দুই বিচারপতি এজলাস ছেড়ে খাস কামরায় চলে যান।

সোমবার সকালে বিচারপতি মো. খসরুজ্জামান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চে এ ঘটনা ঘটেছে।

এদিকে, প্রধান বিচারপতির কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, এজলাস কক্ষে হট্টগোল ও ফাইল ছুঁড়ে মারার ঘটনা আজ মঙ্গলবার প্রধান বিচারপতিকে জানিয়েছেন দুই বিচারপতি।

সূত্র : আমাদের সময়

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles