15.7 C
Toronto
সোমবার, মে ২৭, ২০২৪

‘টাকা দয়া করে ফেরত দেন, নাইলে গণভবনে যাব’

‘টাকা দয়া করে ফেরত দেন, নাইলে গণভবনে যাব’
ছবি সংগৃহীত

পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলা, পৌর ও সরকারি মোজাহার উদ্দিন বিশ্বাস কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণার এক ঘণ্টা পরই স্থগিত করা হয়েছে। গত সোমবার রাত ১১টার দিকে কমিটি ঘোষণার পর সভাপতির পদ না পেয়ে উপজেলা ছাত্রলীগের আগের কমিটির সাধারণ সম্পাদক আশিক তালুকদার টাকা ফেরত চেয়ে ফেসবুকে পোস্ট দেন।

এর ঘণ্টাখানেক পরই জেলা কমিটির ঘোষিত সব কমিটি স্থগিত করা হয়েছে। সংগঠনের কেন্দ্রীয় সংসদের সভাপতি সাদ্দাম হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনান স্বাক্ষরিত প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ঘোষিত ওইসব কমিটি স্থগিত করা হয়।

- Advertisement -

জানা যায়, কলাপাড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আশিক তালুকদার পটুয়াখালী জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুল ইসলাম ঘরানার নেতা হিসেবে পরিচিত। সোমবার রাতে কলাপাড়া উপজেলা, পৌর ও সরকারি মোজাহার উদ্দিন বিশ্বাস কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা করা হলেও কলাপাড়া উপজেলার আগের সাধারণ সম্পাদক আশিক তালুকদারকে কমিটিতে রাখা হয়নি।

কমিটি ঘোষণার পর আশিক তালুকদার তার ফেসবুকে টাকার ছবিসহ একটি পোস্ট দেন। তাতে তিনি লিখেছেন, ‘জেলা ছাত্রলীগ সভাপতির দৃষ্টি আকর্ষণ করছি, টাকাগুলো যে নিছেন দয়া করে ফেরত দেন, নাইলে গণভবনে যাব বাকি ডকুমেন্ট নিয়া।’

আশিক তালুকদার বলেন, আমি সভাপতি প্রার্থী হতে চাইনি। সাইফুল ভাই আমাকে প্রার্থী হতে বলে এবং বিভিন্ন অজুহাতে ৩০ হাজার, ২০ হাজার ও ৫ হাজার করে টাকা নিত। কোরবানির আগে আমাকে সভাপতি করার জন্য ফোন করে ২০ লাখ টাকা চায়। পটুয়াখালীতে খান মোশারেফ হোসেনের বাসার সিঁড়িতে বসে তাকে (সাইফুল) ১৫ লাখ টাকা দিই। আমার সভাপতি হওয়ার দরকার নেই, টাকা ফেরত চাই।

তবে এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুল ইসলাম। তিনি দাবি করেন, আশিক পদ না পেয়ে প্রতিহিংসাপরায়ণ হয়ে কাজটি (ফেসবুকে পোস্ট) করেছে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মোতালেব তালুকদার বলেন, আশিক ফেসবুকের পোস্টে বলেই দিছে তার টাকা ফেরত চায়। কমিটি ঘোষণার ১ ঘণ্টার মধ্যে কেন্দ্রীয় নেতারা তা স্থগিত করেছেন। এতেই বোঝা যায় কিছু একটা হয়েছে।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles