14.1 C
Toronto
রবিবার, মে ২৬, ২০২৪

আজিমপুর কবরস্থানের ব্যবস্থাপনা হবে সফটওয়্যারের মাধ্যমে

আজিমপুর কবরস্থানের ব্যবস্থাপনা হবে সফটওয়্যারের মাধ্যমে

কবরস্থানের ডিজিটাল ব্যবস্থাপনা, সম্পত্তির তথ্য ভান্ডার ব্যবস্থাপনাবিষয়ক দুটি সফটওয়্যার এবং মামলা ব্যবস্থাপনা বিষয়ক একটি অ্যাপ উদ্বোধন করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস। আজ সোমবার বিকেল ৫টায় নগর ভবনের শীতলক্ষ্যা হলে এ সফটওয়্যার ও অ্যাপের উদ্বোধন করেন তিনি। কবর ব্যবস্থাপনাবিষয়ক সফটওয়্যার আপাতত আজিমপুর কবরস্থানে কার্যকর হবে।

- Advertisement -

ডিএসসিসি মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস বলেন, ‘সুশাসিত ঢাকা বিনির্মাণে আমরা আরও একটি ধাপ এগিয়ে গেলাম। সুশাসন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে আমাদের যে কার্যক্রম সেই কার্যক্রমের তিনটি বৃহৎ অংশ আজ আমরা ডিজিটাইজ করলাম।’

ডিএসসিসি মেয়র বলেন, ‘যে কোনো সিটি করপোরেশন বা সিটি কাউন্সিলের জন্য দাফন সম্পন্ন, সৎকার একটি বৃহৎ কার্যক্রম হয়ে থাকে। আমরা দীর্ঘদিন ধরে সে কার্যক্রম করছি। এখন সেটাকে একটি আধুনিক পর্যায়ে এই সফটওয়্যার মাধ্যমে আমরা নিশ্চিত করতে পারব।’

ব্যারিস্টার তাপস বলেন, ‘ঢাকাবাসীকে আমরা আরও সেবা এবং সুনির্দিষ্ট তথ্য দিতে পারব। দ্বিতীয়ত, আমাদের যে নিজস্ব সম্পদ বা সম্পত্তিগুলো রয়েছে, ভান্ডার কার্যক্রম রয়েছে সেটা আরও শৃঙ্খলাবদ্ধ এবং সুশাসনের আওতায় আনার জন্য আমাদের সম্পদ ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম আধুনিকায়ন করছি। তৃতীয়ত হলো, আমাদের বিভিন্ন মামলায় জড়াতে হয় বা আমাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়- সেসব মামলার ব্যবস্থাপনাও আমরা এই অ্যাপের মাধ্যমে করতে পারব।’

তিনি বলেন, ‘আগে করপোরেশন মামলায় হেরে গেলেও বর্তমানে সে পরিস্থিতি ভিন্ন। একটা সময় ছিল, আমরা ১০০ ভাগ মামলায় হেরে যেতাম। এখন ইনশাল্লাহ আমরা প্রায় ১০০ ভাগ মামলায় বিজয়ী হই। এখন আমাদের বিরুদ্ধে মামলার সংখ্যাও কমে আসছে। আজকাল আমাদের বিরুদ্ধে মামলা করতে অনেকেই দ্বিধাবোধ করে। কারণ তারা মামলায় জিততে পারবে কি না, এ বিষয়ে সন্দিহান থাকে। তাই মামলা নিষ্পত্তি করতে এই অ্যাপ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।’

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জানানো হয়, ডিজিটাল কবরস্থান ব্যবস্থাপনা সফটওয়্যারটি পরীক্ষামূলকভাবে আজিমপুর কবরস্থান নিয়ে করা হয়েছে। এর মাধ্যমে আজিমপুর কবরস্থানে দাফন করাদের তথ্যভান্ডার তৈরি করার কাজ চলমান। এখান থেকে দাফন সনদ সংগ্রহ করা যাবে।

কবরস্থান সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য এই সফটওয়্যার থেকে পাওয়া যাবে। ডিএসসিসির ওয়েব পোর্টাল www.dscc.gov.bd অথবা সরাসরি gms.dscc.gov.bd এই লিংকে প্রবেশ করলে তথ্য পাওয়া যাবে। মরদেহ দাফনের যাবতীয় তথ্য এখানে সন্নিবেশিত করা হয়েছে।

সম্পত্তি তথ্যভান্ডার ব্যবস্থাপনা নিয়ে জানানো হয়, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের অভ্যন্তরীণ কাজে ব্যবহারের জন্য এই সংক্রান্ত সফটওয়্যারটি চালু করা হয়েছে। এর মাধ্যমে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের সব স্থাবর সম্পত্তি ব্যবস্থাপনা করা যাবে।

মামলা ব্যবস্থাপনা সফটওয়্যার নিয়ে জানানো হয়, এটি ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের আইন বিভাগের অভ্যন্তরীণ ব্যবহারের জন্য তৈরি করা। এর মাধ্যমে দক্ষিণ সিটির আইন বিভাগ মামলা সংক্রান্ত নথি, উপাদান ইত্যাদি সহজে সংরক্ষণ ও অবলোকন করতে পারবে। আইনজীবীরা মামলার পরবর্তী শুনানির প্রজ্ঞাপন যথাসময়ে নোটিফিকেশন পাবেন, মামলা সংক্রান্ত আইনজীবী মামলার প্রয়োজনীয় নথি, তথ্য সহজে সংরক্ষণ করতে পারবেন। ফলে হারিয়ে বা নষ্ট হওয়ার ঝুঁকি দূর হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে ডিএসসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মো. মিজানুর রহমান, সচিব আকরামুজ্জামান, প্রধান প্রকৌশলী আশিকুর রহমান, সম্পত্তি কর্মকর্তা রাসেল সাবরিন, আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তারা ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র : আমাদের সময়

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles