20.6 C
Toronto
মঙ্গলবার, জুলাই ১৬, ২০২৪

সঙ্গীর কাছে ‘অবাস্তব প্রত্যাশা’ করছেন? বুঝবেন যেভাবে

সঙ্গীর কাছে ‘অবাস্তব প্রত্যাশা’ করছেন? বুঝবেন যেভাবে
ছবি সংগৃহীত

সম্পর্কে থাকলে সঙ্গীর কাছে প্রত্যাশা থাকবে এটাই স্বাভাবিক। তবে সেই প্রত্যাশা যদি অবাস্তব হয় তাহলে তা পূরণ নাও হতে পারে। বিশেষজ্ঞদের মতে,এমন হলে দুজনের মধ্যে দ্বন্দ্ব হতে পারে, সম্পর্ককেও করতে পারে প্রভাবিত । এ কারণে আপনি সঙ্গীর কাছে অবাস্তব কোনো প্রত্যাশা করছেন কিনা তা বোঝা খুবই জরুরি।

এ ব্যাপারে ভারতীয় থেরাপিস্ট মারিয়া জি সোসা ইনস্টাগ্রামে এক লেখা শেয়্র করেছেন। তিনি লিখেছেন, আমরা রোমান্টিক কমেডিতে বাস করি না। একজনের সব কিছুই আরেকজন ভালোবাসবে এমন আশা করা ঠিক নয়।

- Advertisement -

সম্পর্কের ক্ষেত্রে অবাস্তব প্রত্যাশা কেমন হতে পারে তার কয়েকটি উদাহরণ তিনি শেয়ার করেছেন। এগুলো হলো-

১. কাউকে ভালোবাসলেই এটা মনে করা ঠিক নয় যে সে আপনার জন্য পরিবর্তিত একজন হবে।

২. না বললেও সঙ্গী বুঝবে আপনার কী প্রয়োজন এটা ভাবা অবাস্তব প্রত্যাশা।

৩. সঙ্গী আপনার প্রতিটি জিনিস ভালোবাসবে এটা ভাবা ঠিক নয়।

৪. এত দিন ধরে আপনি যে সুখের অপেক্ষা করছেন সঙ্গীর কাছ থেকে সব পাবেন এমন আশা করা অনুচিত।

৫. আপনি যেমন সব ব্যাপারে প্রতিক্রিয়া দেখান বা যে কাজগুলো করেন সঙ্গীও তাই করবে এটা ভাবা ঠিক নয়।

ইন্ডিয়ানএক্সপ্রেস ডটকমে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ভারতের ফোর্টিস হেলথকেয়ারের মানসিক স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ কমনা চিব্বার বলেছেন, সম্পর্কের ক্ষেত্রে একজনের কাছে আরেকজনের প্রত্যাশা থাকে, তা যে কোনো সম্পর্কই হোক না কেন। কিন্তু সেগুলো যদি অন্যের সামর্থ্য, পরিস্থিতি চিন্তা না করে আশা করা হয় তাহলে তা আরেকজনের পক্ষে অবাস্তব হয়ে উঠতে পারে। কারণ তিনি সেগুলো পূরণ নাও করতে পারেন।

সঙ্গীর কাছে অবাস্তব প্রত্যাশা থাকলে কী হয়?

কমনা চিব্বারেরর মতে, যখন প্রত্যাশাগুলি অবাস্তব হয় তখন এটি অসন্তোষ, হতাশায় রূপ নেয়। এর ফলে বিরক্তি, রাগ এবং ধীরে ধীরে মানসিক অসুখে পরিণত হতে পারে। চিব্বারের মতে,সঙ্গীর কাছে প্রত্যাশা পুরণ না হলে দ্বন্দ্ব হতে থাকে। এক সময় সম্পর্ক টিকিয়ে রাখা কঠিন হয়ে পড়ে।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles