আরামে গোপনে বাসা বাধছে যে রোগ, হতে পারে মৃত্যু

- Advertisement -
প্রতীকী ছবি

একটু আরাম করে কে না বাঁচতে চাই? আর সেটা যদি হয় বসে বসে সময় কাটানোর মত আরাম তাহলে তো আর কথাই থাকে না। কিন্তু কথায় আছে না শস্যের মধ্যে ভূত, ঠিক তেমনি এই আরামের মধ্যেও আছে মরণব্যাধি রোগ। যার নাম সিটিং ডিজিজ। এটি গোপনে আপনার শরীরে বাসা বাধতে পারে।

অফিস কিংবা বাসা যেখানেই একটু সুযোগ হয় সেখানেই আরাম করতে ভালোবাসেন অনেকেই। আবার অনেকেই ঘণ্টার পর ঘণ্টা বসে বসে অফিসে কাজ করে যাচ্ছেন। আর এই দীর্ঘসময় বসে থাকার কারণে হৃদরোগ, ডায়াবেটিস, ক্যান্সার, স্থুলতা, রক্তে উচ্চ মাত্রার কোলেস্টেরল, কোমড়ে ব্যথা, ডিমেনশিয়া হতে পারে। যা আপনার অকাল মৃত্যুর ঝুঁকি অনেকাংশেই বাড়িয়ে দেয়।

- Advertisement -

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, প্রায় ২০ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়েছে দীর্ঘ সময় বসে থাকার কারণে। যেখানে সিটিং ডিজিজ বা কাউচ পটেটো রোগকে চিহ্নিত করা হয়েছে। এর রোগের লক্ষণগুলোর মধ্যে অফিসে যাওয়ার সময় বসে কাজ করা, মিটিং করার সময় বসে থাকা এবং দীর্ঘ সময় ধরে টিভি দেখা।

এছাড়া সম্প্রতি এক গবেষণায় দেখা গেছে দীর্ঘক্ষণ বসে থাকার কারণে আমেরিকানদের গড় আয়ু কমে যাচ্ছে।

এসব কিছু শোনার পর হয়ত আপনার মনে ভীতি সঞ্চার হচ্ছে। কিন্তু কিছু সহজ কাজের মাধ্যমে আপনি সহজেই এ রোগ থেকে মুক্তি পেতে পারেন। চলুন দেখে নেওয়া যাক এ রোগ থেকে বাঁচতে যা করতে হবে।

১। যত নড়াচড়া করবেন, দেহঘড়ি ততো স্বাস্থ্যকর ও সহজ হবে। বিশেষজ্ঞদের মতে, যিনি নিয়মিত ব্যায়াম করেন এবং যিনি মোটেই ব্যায়াম করেন না, উভয় ব্যক্তিই সিটিং ডিজিজে আক্রান্ত হতে পারেন।

২। গড়ে প্রতি আধা ঘণ্টায় (বসার পরে) ১-৩ মিনিট উঠে দাঁড়ান বা হাঁটুন।

৩। দ্রুত হাঁটা জীবনী শক্তি বাড়ায়। ফুসফুস ও হৃদপিণ্ডের জন্য উপকারী।

৪। দিনে ২ মিনিট করে সপ্তাহে ৫ দিন সিঁড়ি বেয়ে ওঠা হলো ৩৬ মিনিট হাঁটার সমান।

৫। নিজেকে একটা সহজ টার্গেট দিন। ধরুন-প্রথম ৭ দিনে ১ তলা সিঁড়ি বেয়ে উঠে লিফট নেবেন। তারপরের সপ্তাহে ২ তলা উঠে লিফট নিন। এর ৭ দিন পরে ৩ তলা উঠে লিফট নিন।

৬। এভাবে প্রতিদিন ৬ তলা পর্যন্ত সিঁড়ি ভাঙার লক্ষ্যমাত্রা স্থির করুন। (সিঁড়ির ধাপ প্রতি তলায় ১০টি যেখানে, ৩ তলা = ৬০ ধাপ) ধাপ কম-বেশি নিজে নিজে অ্যাডজাস্ট করে নিন। উপরে উঠতে যে পরিমাণ শক্তি লাগে, নিচে নামতে তার আর্ধেক শক্তি ক্ষয় হয়।

৭। মোবাইলে প্রতি ৩০ মিনিট পর অ্যালার্ম দিন। উঠে দাঁড়ান, নাচের অঙ্গভঙ্গী করুন। দেহ ও মন দুটোই ভালো থাকবে।

৮। ফাইল পাঠাতে পিয়নের সাহায্য না নিয়ে নিজেই যান। এতে আন্তরিকতা যেমন বাড়বে, হাঁটাও হয়ে যাবে। আবার নিজের চা, পানি, নিজেই নিয়ে নিলে আপনার সম্মান মোটেও কমবে না।

৯। ফোনে কথা বলা বা আড্ডার সময় দাঁড়িয়ে থাকুন।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles