4.1 C
Toronto
শনিবার, ডিসেম্বর ৩, ২০২২

নীতা আম্বানির শখের জিনিসপত্রের দাম জানলে চমকে যাবেন

নীতা আম্বানির শখের জিনিসপত্রের দাম জানলে চমকে যাবেন

ভারতের অন্যতম ধনকুবেরের ঘরনি তিনি। সেই সঙ্গে আইপিএলে মুম্বাই ইন্ডিয়ানস দলের মালকিন। তাই নীতা আম্বানির ব্যক্তিগত জীবন সম্পর্কে জানতে উৎসুক অনেকেই। তার সাজগোজও আলাদা করে নজর কাড়ে। শাড়ি কিংবা লেহেঙ্গা- সব কিছুতেই আকর্ষণীয় হয়ে ওঠেন মুকেশ-পত্নী।

- Advertisement -

নীতার পরনের পোশাক, কুমিরের চামড়া দিয়ে তৈরি ব্যবহৃত ব্যাগ নিয়ে কম চর্চা হয় না। দাবি করা হয়, নীতা নাকি বিশ্বের সবচেয়ে দামি পানি খান। ৭৫০ মিলিলিটার সেই পানির বোতলের দাম প্রায় ৬০ হাজার ডলার। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ৫০ লাখ টাকারও বেশি। নীতার বোতলবন্দি ওই পানি আসে ফ্রান্স এবং ফিজি থেকে।

শোনা যায়, এই পানীয় জল স্বর্ণভস্ম মিশ্রিত। প্রায় ৫ গ্রাম মতো স্বর্ণভস্ম থাকে এতে। যা মানবদেহের পক্ষে নাকি খুবই স্বাস্থ্যকর। সেই জন্যেই এই পানির এত দাম।

এখানেই শেষ নয়। চাকচিক্য এবং বিলাসিতার ছোঁয়া লেগে রয়েছে নীতার জীবনের প্রতিটি পরতে পরতে। সকালে ঘুম ভেঙে যে চায়ের কাপে তিনি চুমুক দেন, তার দাম নাকি তিন লাখ টাকারও বেশি। তার বিভিন্ন শখের মধ্যে এটা একটা।

জাপানের প্রাচীনতম বাসনপত্র তৈরির সংস্থা থেকে ২২ ক্যারট সোনা ও প্ল্যাটিনাম খচিত একটি ক্রকারি সেট কিনেছেন নিজের জন্য। পুরো সেটটির দাম দেড় কোটি টাকা।

ঘড়ি নিয়েও যথেষ্ট খুঁতখুঁতে নীতা। তার সংগ্রহে বুলগারি, র‌্যাডো, গুচ্চি, কেলভিন ক্লেন, ফসিলের মতো বিশ্বের সেরা ঘড়ি প্রস্তুতকারক সংস্থার ঘড়ি। হাতব্যাগের প্রতিও যেন নীতা আম্বানির আলাদা ভালোবাসা।

কুমিরের চামড়া দিয়ে তৈরি তার তিন কোটি টাকার ব্যাগ নিয়ে বেশ হইচই পড়ে গিয়েছিল। ২০১৭ সালে এই ব্যাগটি ব্রিটেনে ‘ক্রিস্টিজ’-এ নিলামে উঠেছিল। এই তালিকায় রয়েছে আরও অনেক। যার বেশির ভাগের দামই ৩০ লাখ টাকার উপরে।

জুতার ব্যাপারেও নীতার পছন্দ একেবারে আলাদা। মুকেশ আম্বানি-পত্নীর জুতার ব্যাগ তাক জুড়ে আলো করে থাকে ‘পাদ্রো’, ‘গ্রাসিয়া’র মতো নামিদামি বিদেশি কোম্পানির জুতা। সূত্রের খবর, নীতা নাকি এক জুতা কখনো দুই বার পরেন না।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles