7.9 C
Toronto
শনিবার, নভেম্বর ২৬, ২০২২

বিএনপি-জামায়াতের শাসনামলে যত অপকর্ম

বিএনপি-জামায়াতের শাসনামলে যত অপকর্ম

২০০৬ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি শুধু ঢাকাতেই আওয়ামী লীগের লং মার্চ কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে ৮ হাজার নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছিল বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার।

- Advertisement -

বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার ক্ষমতায় আসার পর বিরোধী দল-মতের যত ব্যক্তিকে গ্রেফতার ও নির্যাতন করা হয়েছে, অতীতে কখনো তা ঘটেনি।

প্রতিটি কারাগারে ধারণ ক্ষমতার থেকে দশগুণ বেশি বন্দি রাখা হয়েছিল। এর মধ্যে বেশিরভাগই ছিল আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মী ও সমর্থক। বন্দিরা বঞ্চিত হয়েছিল ন্যূনতম মানবাধিকার থেকেও।

এছাড়াও ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট ঢাকার বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসবিরোধী সমাবেশে তৎকালীন রাষ্ট্রীয় মদদে হামলা চালায় বিএনপি-জামায়াতের সন্ত্রাসীরা, যা ছিল বাংলাদেশের ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াবহ গ্রেনেড হামলা। এতে নিহত হন আওয়ামী লীগের ২৪ জন নেতাকর্মী।

বিএনপি-জামায়াতের নৃশংসতা দেখা যায় পূর্ববর্তী বছরগুলোতেও। ২০০১ থেকে ২০০৬ সালেও জনগণের ওপর সন্ত্রাসী হামলা, গ্রেনেড হামলা ও পেট্রোল বোমা হামলা চালায় বিএনপি। বিএনপি-জামায়াতের পেট্রোল বোমা ও অগ্নিসংযোগে মৃত্যু হয় ১৫৩ জন সাধারণ মানুষের। নৃশংস ও নারকীয়ভাবে তারা আহত করে ২ সহস্রাধিক মানুষকে।

আরো জানা যায়, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির জাতীয় নির্বাচনের বিরোধিতা করে খালেদা জিয়া ও বিএনপি-জামায়াতের শীর্ষ নেতাদের নির্দেশে হাজার হাজার যানবাহন ভাঙচুর করে আগুন দেয় বিএনপি-জামায়াতের সন্ত্রাসীরা।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, এত অপকর্মের পরও একটি রাজনৈতিক দল কী করে গণতন্ত্রের নাম মুখে নিতে পারে? তাদের মতে, দেশের রাজনীতি সচেতন মানুষেরাও এ নিয়ে ত্যক্ত-বিরক্ত।

সূত্র : ডেইলি বাংলাদেশ

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles