8.6 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২

আয়-ব্যয়ের হিসাব দিলেন সিএনজি চালক

- Advertisement -

সিএনজির ড্রাইভার ভাড়া বেশি চাওয়ায় ধমক দিলাম। কিন্তু তিনি মাথা ঠান্ডা রেখে বললেন, ‘একটা হিসাব করেন আমি বলি। রোজ জমা ১২০০, সারাদিন নিজের খাওয়া ৩০০, রাস্তায় ট্রাফিকদের কমপক্ষে ২০০, গ্যাসের খরচ ৩৫০। এই ২০৫০ টাকা আয় করার পর নিজের পরিবারের জন্য অন্তত এক হাজার রোজগার করতে হয়। এত বড় টেনশন মাথায় নিয়ে যে গাড়ি চালাই, এই জন্য আমারে পুরস্কার দেওয়া দরকার।’

সিএনজিওয়ালা মনে হলো খাঁটি বরিশালের। তার কথা শুনতে ভালো লাগছিল।

তার কাছ থেকে একটা ভালো পয়েন্ট জানা গেছে। তিনি বললেন, এখন সিএনজিতে চড়া লোকজন কমে গেছে। কারণ জিজ্ঞেস করলাম। বললেন, প্রচুর বাইকার । সঙ্গে এও বললেন, মানুষের আয় কমে গেছে।

তবে আমার ধারণা আয় হয়তো কমেনি। তবে খরচ বেড়ে যাওয়ায় সিএনজিতে চলা শ্রেণি হয়তো বাসমুখী হয়েছে।

সরকার অন্তত পাবলিক বাসগুলোতে ভর্তুকি দিতে পারে। আজ এক বড় ভাই বললেন, পাবলিক বাসে একদমই নিম্ন আয়ের মানুষ চড়ে। তার বক্তব্য অনুযায়ী বাধ্য না হলে মানুষ পাবলিক বাসে চড়ে না। কারণ আমাদের দেশে পাবলিক বাসে চড়া কোনো আনন্দের বিষয় না। একধরনের শাস্তি। সরকার যদি পাবলিক বাসে ভর্তুকি দিয়ে হলেও বাস ভাড়া কমিয়ে রাখত তবে সত্যি দেশের নিম্ন আয়ের মানুষের একটা উপকার হতো।

লেখক: সাংবাদিক।

Related Articles

Latest Articles