8.4 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ২৮, ২০২১

গায়ক নোবেলকে তালাক দিলেন স্ত্রী

- Advertisement -
সালসাবিল ও নোবেল। ছবি: সংগৃহীত

সমালোচিত গায়ক মাইনুল আহসান নোবেলকে ২০১৯ সালের ১৫ নভেম্বর বিয়ে করেছিলেন মেহরুবা সালসাবিল। ভালোবেসে বিয়ে করেছিলেন তারা। কিন্তু দাম্পত্য জীবন সুখের হয়নি তাদের।

বিভিন্ন কারণে নোবেলকে তালাক নোটিশ পাঠিয়েছেন মেহরুবা সালসাবিল। গত ১১ সেপ্টেম্বর তালাক নোটিশ পাঠিয়েছেন সালসাবিল। বুধবার (৬ অক্টোবর) দুপুরে সময় নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তিনি নিজেই।

- Advertisement -

সালসাবিল বলেন, ‘নোবেলের সঙ্গে সংসার করা সম্ভব না। তাই তাকে ডিভোর্স লেটার পাঠিয়েছি। এখন যদি সে সিগনেচার করে দেয় তাহলে ডিভোর্স হয়ে যাবে। আর সিগনেচার না করলে তিনমাস পর অটোমেটিক ডিভোর্স কার্যকর হবে।’

কী কারণে তালাক চাইছেন? উত্তরে সালসাবিল বলেন, ‘নোবেল মানসিকভাবে অসুস্থ। সে মাদক এবং নারীতে আসক্ত। বিভিন্ন সময় আমাকে নির্যাতন করেছে। এসব কারণে ওর সাথে সংসার করা সম্ভব না। তাই ডিভোর্স লেটার (তালাক নোটিশ) পাঠিয়েছি।’

- Advertisement -

তালাক নোটিশে সালসাবিল উল্লেখ করেছেন, স্ত্রী হিসেবে দুই বছরের খোরপোষ দিতে অক্ষমতা, স্বামীর মস্তিস্ক বিকৃত, কাবিনের শর্ত লঙ্ঘন, বিবাহ প্রদত্ত কাবিন শর্ত লঙ্ঘন, চরিত্রহীনতা ও নির্যাতনকারী, পরকীয়ায় লিপ্ত, প্রচন্ডভাবে মারধর করে এবং মাদকদ্রব্য গ্রহণকারী হওয়ায় নোবেলের সাথে সংসার করতে চাইছেন না সালসাবিল।

- Advertisement -

এদিকে নোবেল নিজেও তার ফেসবুকে বিচ্ছেদের ইঙ্গিত দিয়েছেন। বুধবার (৬ অক্টোবর) নিজের ফেসুবকে লিখেছেন, ‘ডিভোর্সড’। তাতে মিশ্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন নেটিজেনরা।

ভারতের ‘সারেগামাপা’ রিয়েলিটি শো থেকে পরিচিতি পেয়েছেন মাঈনুল আহসান নোবেল। খ্যাতি পাওয়ার পর বিভিন্ন বিতর্কে জড়িয়েছে তার নাম। দেশের জাতীয় সংগীত পরিবর্তন থেকে শুরু করে লিজেন্ড শিল্পীদের নিয়েও আপত্তিকর মন্তব্য করেছেন তিনি।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles