8.4 C
Toronto
বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ২৮, ২০২১

মহামারীর দ্বিতীয় পর্যায়ে পুরো কানাডাতে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে

- Advertisement -
ফাইল ছবি

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। এমন পরিস্থিতিতে আরেকটি বড় ধরনের প্রাদুর্ভাব বা করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সন্নিকটে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন বিশেষজ্ঞরা। ইউরোপের কয়েকটি দেশ, কানাডা, পেরু, এশিয়ার কিছু অঞ্চলে করোনাভাইরাস আরও দ্রুত ছড়িয়ে পড়ায় সেসব এলাকার কর্র্তৃপক্ষ কড়া পদক্ষেপ নিতে শুরু করেছে। এদিকে কানাডায় করোনার দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হলে কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বলেছেন, আমরা একটি পতনের দ্বারপ্রান্তে রয়েছি, যা বসন্তের চেয়ে আরও খারাপ হতে পারে। তিনি বলেন, কানাডিয়ানরা সামাজিক অনুষ্ঠানের জন্য জমায়েত হবে না। দ্বিতীয় সংক্রমণকে নিয়ন্ত্রণে আনার ক্ষমতা আমাদের রয়েছে। জনসাধারণকে অবশ্যই মাস্ক পরতে হবে।

করোনা মহামারির দ্বিতীয় পর্যায়ে পুরো কানাডাতে এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বেড়েই চলেছে। ইতোমধ্যে বিভিন্ন প্রদেশে ‘ডেঞ্জার জোন’ ও ‘হাই অ্যালার্ট’ ঘোষণা করা হয়েছে। অন্টারিওে প্রতিদিন ৩ থেকে ৫ শতাংশ হারে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে।করোনার সেকেন্ড ওয়েভে অন্টারিওতে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা, ১ম দফাকেও ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে শঙ্কা জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। ফেব্রুয়ারির শুরুতেই আইসিইউতে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ১ হাজার ছাড়াতে পারে প্রদেশটিতে।

- Advertisement -

কুইবেকে আরো প্রায় ২ হাজার মানুষের শরীরে করোনাভাইরাস সনাক্ত হয়েছে। এসময় প্রাণ হারিয়েছেন ৪৭ জন। করোনার হটস্পট খ্যাত কুইবেকে এখন পর্যন্ত ২ লাখ ৩০ হাজারের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। তবে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন প্রায় ২ লাখ মানুষ। এদিকে স্বাস্থ্যবিভাগ জানিয়েছে, হাসপাতালগুলোতে বাড়ছে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles