19.8 C
Toronto
শনিবার, মে ২৮, ২০২২

পালিয়ে বিয়ে করতে গিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার স্বামী পরিত্যক্তা নারী

- Advertisement -
পালিয়ে বিয়ে করতে গিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার স্বামী পরিত্যক্তা নারী - The Bengali Times
প্রেমিকের সঙ্গে পালিয়ে বিয়ে করতে গিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের শিকার নারী

২১ বছর বয়সী এক স্বামী পরিত্যক্তা নারীকে বিয়ের কথা বলে ডেকে নিয়ে ‘সংঘবদ্ধ ধর্ষণের’ অভিযোগে ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে নন্দীগ্রাম থানা পুলিশ। শনিবার (২ এপ্রিল) বিকেলে গ্রেপ্তারকৃতদের কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।

পুলিশ জানায়, মাসখানেক আগে নন্দীগ্রামের রিধইল গ্রামের নিজাম উদ্দিনের ছেলে শাহাদত হোসেন (৪৭) পার্শ্ববর্তী শেরপুর উপজেলার ওই নারীকে বিয়ের প্রস্তাব দেন। শাহাদত বিবাহিত ও বেশি বয়সী হওয়ায় হওয়ায় ওই নারীর অভিভাবকরা বিয়েতে রাজি হননি। কিন্তু শাহাদাত তার সঙ্গে নিয়মিত মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করে প্রেমের সম্পর্ক তৈরি করেন। এরপর শুক্রবার (১ এপ্রিল) সন্ধ্যা আনুমানিক সাড়ে ৬টার দিকে পালিয়ে বিয়ের কথা বলে নিজের এলাকায় ওই নারীকে ডেকে নেন শাহাদত।

- Advertisement -

পুলিশ আরও জানায়, রাত আনুমানিক সাড়ে ৯টার দিকে ওই নারীকে নন্দীগ্রামের রিধইল গ্রামে নিয়ে যাওয়ার পথে কলেজপাড়ার আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে মনির হোসেন (২১), মকছেদ আলীর ছেলে বিজয় (২৪) ও আব্দুল আজিজের ছেলে রাকিবুল ইসলামসহ (২২) ৭/৮ জন তাদের পথরোধ করেন। পরে তারা ওই নারীকে ধানক্ষেতে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ওই নারী বাদী হয়ে নন্দীগ্রাম থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে অপহরণ, ধর্ষণ এবং সহযোগিতার অপরাধে ৬ জনের নাম উল্লেখ করে ও ৩/৪ জনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশ কথিত প্রেমিক শাহাদত হোসেন, এজাহার নামীয় আসামী হযরত আলী ও সুমন আলীকে গ্রেপ্তার করেছে।

নন্দীগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন জানান, মামলার অন্যান্য আসামীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

সূত্র : চ্যানেল ২৪

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles