2.1 C
Toronto
রবিবার, ডিসেম্বর ৪, ২০২২

ক্ষমতায় টিকে থাকা নিয়ে শঙ্কা ইমরান খানের

Imran Khan : ক্ষমতায় টিকে থাকা নিয়ে শঙ্কা ইমরান খানের - the Bengali Times

পাকিস্তানের ক্ষমতাসীন দল তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) অন্তত ২৪ জন সাংসদ প্রকাশ্যে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেন। তাঁরা ইমরান খানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাবে ভোট দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। এর ফলে ইমরান খানের ক্ষমতায় টিকা থাকা নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়েছে।

- Advertisement -

পাকিস্তান সংসদের নিম্নকক্ষ জাতীয় পরিষদে বিরোধীদল গত সপ্তাহে এ অনাস্থা প্রস্তাব পেশ করে। দেশটির অর্থনীতি ও পররাষ্ট্রনীতির অব্যবস্থাপনার জন্য ইমরান খানকে দায়ী করে আসছে বিরোধীরা। সংবাদমাধ্যম দ্য টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, অসন্তুষ্ট পিটিআই-এর এই সাংসদেরা বর্তমানে সিন্ধু হাউসে অবস্থান করছেন। এ ভবন সিন্ধু প্রদেশ থেকে ইসলামাবাদে আসা গুরুত্বপূর্ণ কর্মকর্তাদের অবস্থান করার জন্য ব্যবহার করা হয়। সরকারি মন্ত্রীদের দ্বারা অপহরণের হুমকি থাকায় তাঁরা বর্তমানে সেই ভবনে অবস্থান করছেন বলে দাবি করেছেন।

সিন্ধু হাউসে অবস্থানরত পিটিআই-এর রাজা রিয়াজ নামের এক সাংসদ বলেছেন, ‘যাঁরা প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাবে ভোট দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন, তাঁদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা না নেওয়ার ব্যাপারে যদি আশ্বস্ত করা হয়, তাহলে আমরা এ ভবন থেকে ফিরে যাব।’

রাজা রিয়াজ আরও বলেন, ‘বর্তমানে এ ভবনে ২৪ জন আইনপ্রণেতা অবস্থান করছেন। অনেক পিটিআই আইনপ্রণেতা ও মন্ত্রীরাও এখানে আসতে প্রস্তুত।’

অন্যদিকে, পাকিস্তানের তথ্যমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী বলেছেন, ‘সরকার বাঁচাতে আমরা কোনো ব্ল্যাকমেইলিংয়ে পা রাখছি না। বিশ্বাসঘাতকতার সংস্কৃতিকে আমরা প্রত্যাখ্যান করছি।’

একটি অনাস্থা প্রস্তাব সফল হওয়ার জন্য পাকিস্তান সংসদের নিম্নকক্ষে মোট ৩৪২ সদস্যের মধ্যে ১৭২ জন সদস্যের সংখ্যাগরিষ্ঠ সমর্থন প্রয়োজন। এখনও জাতীয় পরিষদে ইমরান খানের সংখ্যাগরিষ্ঠতা রয়েছে। এর মধ্যে তাঁর পিটিআই-এর ১৫৫ সদস্য ও জোট অংশীদারদের ২৩ জন সদস্য রয়েছে।

বিরোধীদলের সদস্য সংখ্যা ১৬৩। বিরোধীরা আশা করছে, ক্ষমতাসীন জোটের কিছু আইনপ্রণেতা ইমরান খানের সরকারকে অপসারণে তাদের সাহায্য করবেন।

২০১৮ সালে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর পদে বসেন ইমরান খান। ২০২৩ সালে পাকিস্তানে পরবর্তী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। মেয়াদকালের আগেই এবার ক্ষমতা নিয়ে শঙ্কায় পড়ে গেলেন সাবেক জনপ্রিয় ক্রিকেটার ইমরান খান।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles