24.5 C
Toronto
শুক্রবার, জুলাই ১৯, ২০২৪

‘গোফান্ডমি’র বিষয়ে তদন্তের পরিকল্পনা

‘গোফান্ডমি’র বিষয়ে তদন্তের পরিকল্পনা - the Bengali Times
ফাইল ছবি

কানাডার ট্রাকার কনভয়ের জন্য ‘গোফান্ডমি’র তহবিল সংগ্রহ বন্ধ করা খতিয়ে দেখার পরিকল্পনা করছেন টেক্সাসের অ্যাটর্নি জেনারেল। বাধ্যাতমূলক ভ্যাকসিনেশন ও কোভিড বিধির প্রতিবাদে রাজধানী আন্দোলন করে আসছে তারা।

বুধবার এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, অ্যাটর্নি জেনারেল কেন প্যাক্সটন অনলাইন প্রচারণা সরিয়ে ফেলার মধ্য দিয়ে ক্রাউড ফান্ডিং প্রতিষ্ঠানটি টেক্সাস ডিসিপ্টিভ ট্রেড প্র্যাক্টিসেস অ্যাক্টের লঙ্ঘন করেছে কিনা তা খতিয়ে দেখবেন। কারণ, এর মধ্য দিয়ে প্রতিষ্ঠানটির স্বচ্ছতা প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে।

- Advertisement -

অ্যাটর্নি জেনারেল প্যাক্সটন বলেন, বাধ্যবাধকতা বিরোধী, স্বাধীনপন্থী যেকোনো আন্দোলনে অর্থ দানকারী যে কারো জন্যই ‘গোফান্ডমি’র ভূমিকা আতঙ্কের। আরও খোলাসা করে বলতে গেলে যেসব আমেরিকান সাংবিধানিক অধিকার রক্ষা করতে চান তাদের জন্য হুমকির। টেক্সাসের অনেকেই এতে অর্থ সহায়তা দিয়েছেন। আমার দায়িত্ব টেক্সাসের ভোক্তাদের সুরক্ষা দেওয়া। কারণ, তাদের কষ্টার্জিত অর্থ কোথায় যাচ্ছে তা তারা জানতে চান।

সেবার শর্ত লঙ্ঘনের কারণে তহবিল সংগ্রহ কার্যক্রম শুক্রবার বন্ধ ঘোষণা করে গোফান্ডমি। সেই সঙ্গে সংগৃহীত অর্থ ফেরত দেওয়ারও ঘোষণা দিয়েছে তারা। এ পর্যন্ত ১ কোটি ডলার সংগ্রহ করেছে তারা।

সিদ্ধান্তটির বিষয়ে গোফান্ডমি বলেছে, আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর কাছ থেকে তারা প্রমাণ পেয়েছে যে, আন্দোলনটিতে সহিংসতা ও অন্যান্য বেআইনী কর্মকা- চলছে।

এ সিদ্ধান্তে যুক্তরাষ্ট্রে ব্যাপক বিতর্ক তৈরি করেছে। ফ্লোরিডার গভর্নর রন ডেসান্টিস ও টেক্সাসের সেনেটর টেড ক্রুজের মতো রিপাবলিকান রাজনীতিকরা গোফান্ডমির সমালোচনা করেছেন। প্ল্যাটফরমটির বিরুদ্ধে তদন্তেরও দাবি জানিয়েছেন তারা। তহবিল স্থানান্তরের কারণে গোফান্ডমির বিরুদ্ধে তদন্তের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন প্যাক্সটন।

সোমবার অনুষ্ঠিত ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে জননিরাপত্তা মন্ত্রী মার্কো মেন্ডিসিনোকে এ ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, আইনের শাসন মেনে কানাডিয়ানরা কীভাবে দৈনন্দিন জীবন কাটাবে তা টেক্সাসের অ্যাটর্নি জেনারেলের উদ্বেগের বিষয় নয়। আমরা কানাডিয়ান। আমাদের নির্দিষ্ট আইন আছে এবং আমরা তা মেনে চলি।

টেক্সাসের অ্যটার্নি জেনারেলের সঙ্গে দ্বিমত পোষণ করেন জরুরি প্রস্তুতি বিষয়ক মন্ত্রী বিল ব্লেয়ারও। তিনি বলেন, আমাদের প্রত্যেকেরই মতামত দেওয়ার অধিকার রয়েছে এবং আমার মতে প্যাক্সটন বুল কথা বলছেন।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles