7.4 C
Toronto
মঙ্গলবার, এপ্রিল ১৬, ২০২৪

অতঃপর কিছু বললেন শামীম ওসমান

অতঃপর কিছু বললেন শামীম ওসমান - the Bengali Times
ফাইল ছবি

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন (নাসিক) নির্বাচন নিয়ে কি করছেন জেলার-৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমান- এ নিয়ে সবার দৃষ্টি যেন তার দিকে। তার মুখ থেকে কিছু শুনতে চাচ্ছিলেন অনেকেই। অবশেষে সরাসরি নির্বাচন নিয়ে কিছু না বললেও নিজেই এক অনুষ্ঠানে তার মোবাইল থেকে লেখা কিছু মন্তব্য পড়ে শোনান উপস্থিত সকলকে।

মোবাইলে লেখা সেই কথাগুলো নিজে পড়ে তিনি বলেন, ‘সত্য বললে আঘাত আসবেই। না বলতে পারলে মিথ্যা বলবেন না। অপমানিত হতেই হবে ঠকতে হবে। ভুল মানুষের পাল্লায় পড়তেই হবে। চেনা মানুষকে অচেনাও হতে দেখতে হবে। বিশ্বাসকে লুটিয়ে পড়তে দেখতে হবে। নিঃসঙ্গ হতে হবে। রক্তাক্ত হতে হবে। অঝরে কাঁদতে হবে। অন্ধকার রাস্তায় হাঁটতে হবে। উচিত কথা বললে হাজারটা আঙুল গুণতে হবে। একটার পর একটা ধাক্কা খেতে হবে। দেয়ালে পিঠ ঠেকাতে হবে। আর তারপর যখন ঘুরে দাঁড়ানোর লড়াইটা শুরু হবে তখন লোকে বুঝতে পারবে- মানুষটা আঘাতগুলো দিয়ে গড়া তাকে ভাঙে এমন সাধ্য কারো নাই।’

- Advertisement -

আজ বুধবার সন্ধ্যায় নারায়ণগঞ্জ জেলা টেলিভিশন জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের অভিষেক অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে একথাগুলো মোবাইল থেকে পড়ে শোনান শামীম ওসমান। তিনি আরও বলেন, ‘তোমার মা-বাবা, ভাইবোনকে কেউ অপমান করে তার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে না পারলে- তবে আপোস করো না। কারণ ভবিষৎতে তুমি তোমাকে ক্ষমা করতে পারবে না। পৃথিবীতে এখন এত মুখোশ পরা মানুষ মেকআপ পরা মানুষ। লুকিয়ে থাকা মুখোশ খুললে চেহারাটা এত বীভৎস যে ভয়ে আঁতকে উঠি।’
নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এই সংসদ সদস্য বলেন, ‘১৬ জুন বোমা হামলায় আমার বিশজন লোক মারা গেছে। আমার চন্দন শীলের পা নেই তিনি এখনো ইন্সুরেন্স কোম্পানিতে কাজ করে খান। কোনো ধান্দাবাজি করেন না। এতেই আমার গর্ব লাগে। আমি রক্তের মধ্যে শুয়েও বলি শেখ হাসিনাকে বাঁচান। নীতি এবং আদর্শ সত্য কথা। কিন্তু আমরা দেখেছি বঙ্গবন্ধু যেদিন দেশে ফিরে এসেছিলেন তখন মোশতাক কী সুন্দর কান্না করছিলেন। তিনি বঙ্গবন্ধুকে বলেছিলেন- তাজউদ্দীন চান নাই আপনি দেশে ফেরেন। আমার বাবাকে (এ কে এম শামসুজ্জোহা) মোশতাকের সাথে যোগ দেয়ার প্রস্তাব দিলে তিনি বলেছিলেন আমাকেও হত্যা করো। আমরা মরেও প্রমাণ করতে চাই আমরা শেখ মুজিবের লোক ছিলাম।’

আজ পুরাতন কোর্ট এলাকায় অবস্থিত পাবলিক লাইব্রেরি মিলনায়তনের এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা, নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন, সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্টের সদস্য কাশেম হুমায়ুন, বিএফইউজে’র সভাপতি ওমর ফারুক ও বিকেএমইএ’র সাবেক পরিচালক মাসুদুজ্জামান প্রমুখ।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles