-8.2 C
Toronto
সোমবার, জানুয়ারী ২৪, ২০২২

২৪ ঘণ্টায় করোনায় সর্বোচ্চ মৃত্যু দেখল যুক্তরাষ্ট্র

- Advertisement -

করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) নতুন ধরন ওমিক্রন আসার পর যুক্তরাষ্ট্র আবারও মহামারির কেন্দ্রস্থল হয়ে উঠেছে

করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) নতুন ধরন ওমিক্রন আসার পর যুক্তরাষ্ট্র আবারও মহামারির কেন্দ্রস্থল হয়ে উঠেছে। ইউরোপের মতো যুক্তরাষ্ট্রেও গত এক সপ্তাহের শনাক্তের হার সে ইঙ্গিতই দিচ্ছে। এবার নতুন করে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে মৃত্যুর হারও।

যদিও গতকাল ১০ লাখের বেশি করোনায় আক্রান্ত হওয়ার রেকর্ড গড়েছিল দেশটি। তবে আজ বুধবার (৫ জানুয়ারি) সে সংখ্যা অর্ধেকে নেমেছে। বিশ্বব্যাপী করোনার পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী যুক্তরাষ্ট্রে ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হয়েছে ৫ লাখ ৬৭ হাজার ৬৯৬ জন। একই সময়ে মৃত্যু হয়েছে এক হাজার ৮৪৭ জনের।

- Advertisement -

২৪ ঘণ্টার মৃত্যুর হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের ধারে কাছেও কোনো দেশ নেই। যুক্তরাষ্ট্রের পর মৃত্যুর হিসেবে দ্বিতীয় স্থানে আছে রাশিয়া। দেশটিতে ৮৩৪ জনের মৃত্যুর খবর দিয়েছে ওয়ার্ল্ডওমিটার। এ ছাড়া জার্মানিতে মৃত্যু হয়েছে ৩৯৭ জনের এবং ফ্রান্সে ৩৫১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

ব্লুমবার্গের খবর বলছে, করোনার নতুন ধরন ওমক্রিন এখন আমেরিকানদের প্রাত্যহিক জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে প্রভাব বিস্তার করছে।

করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যুও হয়েছে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশটিতে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫ কোটি ৮০ লাখ ৪০ হাজার ৭২০ জনে। আর মোট মৃত্যু হয়েছে ৮ লাখ ৫১ হাজার ৪৩৯ জনের।

জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য বলছে, গত এক সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি একশ নাগরিকের একজন কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন। স্কুল আর অফিস বন্ধ করে দিতে হচ্ছে অনেক এলাকায়। কর্মীদের অফিসে না গিয়ে বাসায় বসেই কাজ করতে উৎসাহিত করছে কোম্পানিগুলো।

পণ্য পরিবহন ব্যবস্থা বিঘ্নিত হওয়ায় বাজার পরিস্থিতি নিয়েও শঙ্কা জাগছে। রোগীর চাপ সামলাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে হাসপাতালগুলোকে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে মারা গেছেন আরও ৬ হাজার ৩৫০ জন। অন্যদিকে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ২১ লাখ ২২ হাজার ৭৪ জন; যা এ যাবৎকালের মধ্যে সর্বোচ্চ।

আর বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্ত হয়েছেন ২৯ কোটি ৫৫ লাখ ২৭ হাজার ৮১২ জন এবং মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫৪ লাখ ৭৩ হাজার ২৮৫ জনে। আর সুস্থ হয়েছেন ২৫ কোটি ৬০ লাখ ৬৬ হাজার ৮৮৫ জন।

- Advertisement -

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles