26.4 C
Toronto
মঙ্গলবার, মে ২১, ২০২৪

প্রেমিকের লাশে নিচে লুকিয়ে ছিলেন তিনি

প্রেমিকের লাশে নিচে লুকিয়ে ছিলেন তিনি
প্রেমিকের সঙ্গে মাজাল

ফিলিস্তিনের সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাসের যোদ্ধারা গত ৭ অক্টোবর গাজা থেকে ইসরায়েল অভিমুখে হাজার হাজার রকেট ছুড়ে। সেইসঙ্গে ইসরায়েলের সীমান্ত ভেদ করে দেশটিতে তাণ্ডব চালায়। এতে ইসরায়েলে এক হাজার ৪০০ জন নিহত হয়। আহত হয় তিন হাজারের বেসি।

সেইদিন ইসরায়েলে অনুষ্ঠিত এক ফেস্টিভ্যালে হামলা চালিয়ে ২৫০ জনকে হত্যা করে হামাসের যোদ্ধারা। ওইদিনের বর্বর ঘটনার বর্ণনা দিয়েছেন ইসরায়েলি এক নারী। এক্সপ্রেস ডট কম ডট ইউকে’তে তিনি বলেছেন, সেইদিন হামলাকারীদের হাত থেকে বাঁচতে লাশের স্তূপের নিচে লুকিয়েছিলেন তিনি। সেইসব লাশের মধ্যে তার প্রেমিকের লাশও ছিল।

- Advertisement -

২৭ বছর বয়সী মডেল মাজাল বেন-ডেভিড সেইদিন পায়ে গুলিবিদ্ধ হন। সেইসময় তিনি প্রায় দুই ঘণ্টা ধরে লাশের স্তূপে মৃতের ভান করে ছিলেন। সেসব লাশের মধ্যে তার পার্টনার ডেভিড নেমানও ছিল। তাকে হামাসের যোদ্ধারা গুলি করে হত্যা করে।

ঘটনার বিস্তারিত জানাতে মাজাল আরও বলেন, সেইদিন তার শরীর দিয়ে রক্ত ঝরছিল কিন্তু প্রাণে বাঁচতে তিনি নিশ্চুপ হয়ে ছিলেন। তিনি জানান, সেইদিন আমরা গাড়িতে উঠে চলে যাচ্ছিলাম কিন্তু তারা বের হওয়ার পথ বন্ধ করে রাখে। এসময় একজন নিরাপত্তা রক্ষী চিৎকার করে বলতে থাকেন, প্রাণে বাঁচতে চাইলে পালান। হামলাকারীরা চতুর্দিকে গুলি চালাচ্ছিল।

এরপর তারাসহ ১৪ জন একটি ডাস্টবিনে লুকান। সেখানে তারা প্রায় তিনঘণ্টা ধরে ছিলেন। কিন্তু এরপর এক বন্দুকধারী তাদের খুঁজে পায় এবং তাদের গুলি করে। চোখের সামনে প্রেমিকের বুকে গুলি করে বন্দুকধারীরা। সেইসময় পা ও নিতম্বে গুলিবিদ্ধ হন বলে জানান মাজাল।

মাজাল বলেন, তারা আমাদের ঘিরে ফেলে এবং অবিরাম গুলিবর্ষণ করতে থাকে। এসময় আমি শুনতে পাই একজন মেয়ে চিৎকার করে বলতে থাকে, দয়াকরে আমায় নিয়ে যাবেন না, আমায় ছেড়ে দিন। কিন্তু তারা তাকে অপহরণ করে।

- Advertisement -

Related Articles

Latest Articles