img

ধর্ষণ করো ছেলে

ধর্ষণ করো ছেলে

যেখানে যখন, যাকে খুশি পাও

মুখ বেঁধে তাকে তুমি তুলে নাও

সে যদি তোমার মা ও, বোন হয়

ছেড়ো না তাদেরও পেলে!

ধর্ষণ করো ছেলে।

তোমার কি তবে মেয়ে, বোন নেই--

তুমি ছুটে চলো শরীরী নিজেই?

জন্মজঘনে হাতুড়ি চালাও

মায়ের শরীরে তৃষ্ণা মেটাও

আর খুঁজে ফেরো মেয়ে

তোমার কামুক বৃক্ষআগুনে

চারিদিক গেছে ছেয়ে।

তবুও তো তুমি শক্তির জোরে

হিংস্র শ্বাপদ রাস্তার মোড়ে

দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে যুবতী শরীর খোঁজো;

তুমি কি কখনো বোঝো

তোমার মায়ের শরীরও....

img

অপেক্ষাতে একা 🦜শেখ নজরুল

এ রাত আসবে না আর

আসবে হয়তো অন্য রাত

আজ যে হাত ছুঁতে চায় হাত

সে হাত তো ছিলো আমার

তবু তুমি ধরলে না

আপন হবার সহজ দিনে

একটু আপন করলে না

ভাবছো আমি যখন তখন

সঙ্গে নিয়ে আমার এ মন

আসবো ফিরে আবার

তুমি চিনতে যাকে সহজ করে

এতো সহজ নেই সে আর

খুব কাছাকাছি থেকেও তবু

আপন হতে নড়লে না

আপন হবার সহজ দিনে

একটু আপন করলে না

চোখ দুটিতে তাকিয়ে দেখি

বড্ডো টলোমলো

আমি ছাড়া....

img

কৃষক কন্যার প্রেমিক 🥀 শেখ নজরুল

এক জন্মে একবারও কী হবো না ধান

কেউ কী ডাকবে না বিচুলি নামে

হবো না কৃষকের স্বপ্ন, কৃষাণীর হাসি

ছোট্ট জীবনে এবারও কী হবো না নবান্ন

কত ইচ্ছে, আমার নাম হবে শস্যের মৌসুম

আমায় শরীর ঘিরে উৎসব করবে মানুষ

নতুন বাসর সাজাতে পুছবে, শস্যের গোলা

আঙিনা সাজাবে ঝলমলে আলোর খোয়াড়ে

এক জন্মে একবার কী হবো না কুলো

সোনার শরীরে আমার পড়বে না একবার

কৃষক বধূর শস্যগন্ধ হাতের ছোঁয়া

এক জন্মে নেবো....

img

একটা শুধু মন

আমার একটা শুধু মন

তারে চাইছে অনেক জন

যার খুশি নিক ইচ্ছেমতো

আমি করবো না বারণ


কেউ যদি নেয় চক্ষুদুটি

দেখার তবে দেবো ছুটি

কেউ যদি চায় কপালটাকে

ভাগ্য যাবে তারই ডাকে


আমার একটা শুধু বুক

নিয়ে কেউ যদি পায় সুখ

আমার হোক নারে মরণ

আমি করবো না বারণ


কেউ যদি চায় ঠোঁটের দখল

তাকেই দেবো হাসির টোল

কেউ যদি চায় আঙুল নিতে

সব ছোঁয়া চাই তারে দিতে


আমার একটা শুধু প্রাণ

নিয়ে কেউ যদি গায় গান

আমার....

img

এই হৃদয়ের খোঁড়াখুঁড়ি

কষ্ট দিয়েছি তাকে

যে আমার বুকেই থাকে

তাকে বলিনি সে কারণ

ক্ষমা করে দিস ওরে

আমার অভাগা মন


অভিযোগ করেনি কোনো

প্রশ্ন সে করেনি কখনও

কেনো করি এতো অনাদর

নিঃসঙ্গতায় কাটাতে প্রহর

ফেলে গেছি যখন তখন

ক্ষমা করে দিস ওরে

আমার অভাগা মন


এতো নিঃষ্পাপ হাসি আছে যার

তবু ঠোঁট দুটো পর ভাবি তার


তবু সে নীরবে হাসে

বুঝি অবহেলা ভালোবাসে

তবু চাই থাক সে দূরে

দেখতে দেবো না হৃদয় খুঁড়ে

বিরহ করেছি বারণ


ক্ষমা করে দিস ওরে

আমার অভাগা....

img

তোমার ঠিকানা হারিয়ে ফেলেছি

ডাকঘরের বারান্দায় কত না

চিঠি খেলা খেলেছি

খেলতে খেলতে জানি না কখন

তোমার ঠিকানা হারিয়ে ফেলেছি

চিঠির সারাগায় আমি লিখেছি তোমায়

একটি কথা শত-সহস্রবার তুমি আমার

আর ভালোলাগার মুগ্ধ দুচোখ মেলেছি

ডাকঘরের বারান্দায় কত না

চিঠি খেলা খেলেছি

আজও সেই চিঠি রেখেছি খুব যত্ন করে

মাঝে মাঝে খুলে দেখি ঘুমভাঙা ভোরে

চিঠিগুলো আজ মন চায় দিতে কারো হাতে

তারপর শূন্যতায় ফিরে যাবো কোনো রাতে

তোমার জন্য বাক্সে নতুন চিঠি ফেলেছি

ডাকঘরের বারান্দায় কত না

চিঠি....

img

তিনি তো মুত্যুঞ্জয়ী প্রাণ

কে বলে বঙ্গবন্ধু বেঁচে নেই

তিনি তো মুত্যুঞ্জয়ী প্রাণ

এ যেনো বিধাতার আপন হাতে

করে যাওয়া দান

শাপলার মুখ তাকে না ভেবে দোলে না

দোয়েলের গান তো তার সুর ভোলে না

তাকে ভেবে গাঢ় হয় আরও

অমর পতাকার পরান

এ যেনো বিধাতার আপন হাতে

করে যাওয়া দান

যে বলে বঙ্গবন্ধু আর দেয় না ভাষণ

মানুষের কথা ভেবে তাঁর কাঁদে না মন

যে বলে সে মিথ্যে বলে

তা না হলে কেনো আজও

এ মাটিতে সোনা....

img

রাতের সমুদ্র

রাতের সমুদ্রটা বড় অস্থির।

পাড়ে বসে দেখছিলাম।

দেখছিলাম আর ভাবছিলাম।

কিসের জন্য এই চঞ্চলতা!

মেঘের লেশমাত্র ছিল না।

ঝড়ের মুখোমুখি হবার আশঙ্কা নেই।

চাঁদ উঠেছিল মুক্ত আকাশে।

তবে ম্লান ছিল তার আলো।

জোছনার স্নিগ্ধতা ছুঁতে পারেনি

অগাধ জলরাশিকে।

মায়াময় হয়নি তার নীল রঙ।

তাই কি এত রাগ? নাকি অভিমান?

ঢেউগুলো আছড়ে পড়ছিল সশব্দে।

আক্রোশের বহিঃপ্রকাশ।

ভীষন লোভ হচ্ছিল। ইচ্ছা করছিল,

নদী হয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ি ওর বুকে

আঁকড়ে ধরি তার ফেনালু স্রোতধারাকে

বিলীন হয়ে যাই তার গভীরতায়।

তবু যদি....

img

তোমার ঘুম নেই, আমারও ঘুম নেই

শেখ নজরুল

আলোটা নিভিয়ে

নিঃশব্দে এগিয়ে

জানালায় দাঁড়ালাম

সারশির ফাঁক দিয়ে

বাইরে তাকিয়ে

দেখছি আনমনে

দুটো্ জোনাকি উড়ছে

মিট মিট করে

আলো তার জ্বলছে

মনটা খারাপ ছিলো

হঠাৎ ভালো হলো

ওপাশে অন্ধকার

কিছু যায় না দেখা

এপাশে দাঁড়িয়ে আমি

খুব বিষণ্ন একা

স্তব্ধ রাত্রির বুকে

তুমি কী আছো সুখে

তোমার আমার মাঝখানে

ঝিঁঝিঁ পোকা ডেকে ডেকে

কত যে বিরহ আনে

তোমার ঘুম নেই

আমারও ঘুম নেই

আমাদের মাঝখানে

আশ্চর্য অন্ধকার

তবু তোমাকেই 

দেখতে চাচ্ছি বারবার

আমি দেখতে চাচ্ছি বারবার

তোমার আমার মাঝখানে

জোনাকীর একটু আলো

কত যে বিরহ আনে

তবু তোমাকেই 

দেখতে....