বৃহঃস্পতিবার | ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ | টরন্টো | কানাডা |

Breaking News:

  • অন্টারিওতে আক্রান্তের সংখ্যা অস্বাভাবিক বেড়ে যেতে পারে
  • সংক্রমণের চতুর্থ ঢেউয়ের আশঙ্কা
ফাইল ছবি


গ্রীষ্মে মেরিল্যান্ডের কারখানাটি সরাসরি পরিদর্শনের পরিকল্পনা করছে হেলথ কানাডা। তার আগ পর্যন্ত সেখানে তৈরি কোনো পণ্য বা উপাদ গ্রহণ করবে না কানাডা। এ পরিকল্পনার অংশ হিসেবে ব্যবহারের জন্য জনসন অ্যান্ড জনসনের তিন লাখ ডোজের বেশি ভ্যাকসিন ছাড় করবে না কানাডা। মান নিয়ে প্রশ্ন ওঠায় বাল্টিমোরে ইমার্জেন্ট বায়োসলিউশন্স প্ল্যান্টে তৈরি এসব ভ্যাকসিন এপ্রিল থেকে কোয়ারেন্টিন করে রাখা হয়েছে।

একই প্ল্যান্টে তৈরি দেড় কোটি ডোজ ভ্যাকসিন এপ্রিলের গোড়ার দিকে নষ্ট করতে হয় জনসন অ্যান্ড জনসনকে। কর্মীরা অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিনের ফর্মুলার সঙ্গে গুলিয়ে ফেলায় প্ল্যান্টিতে তৈরি জেঅ্যান্ডজের ভ্যাকসিনগুলোর ব্যাপারে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। কানাডায় সরবরাহ করা ৩ লাখ ১০ হাজার ডোজ ভ্যাকসিনের উপাদানও একই সময় তৈরি হয়েছিল এবং এগুলোতে কানাডার মান রক্ষিত হয়েছে কিনা সেটা নিশ্চিত নয় হেলথ কানাডা। এ কারণেই ভ্যাকসিনগুলো কানাডায় ব্যবহারের জন্য ছাড় করা হচ্ছে না।

পাবলিক সার্ভিসেস অ্যান্ড প্রকিউরমেন্ট কানাডার মহাপরিচালক জোয়েল প্যাকুয়েট শুক্রবার এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে বলেন, এ মাসের শেষ দিকে জেঅ্যান্ডজের ভ্যাকসিনের আরেকটি চালান আসবে বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে। কোথায় এগুলো তৈরি হয়েছে এবং এটি হেলথ কানাডার সিদ্ধান্তের পরিপন্থী তাৎক্ষণিকভাবে সেটা খোলাসা করা হয়নি।

হেলথ কানাডা শুক্রবার এ সংক্রান্ত এক বিবৃতিতে বলেছে, সংস্থা নির্ধারিত মানমাত্রা, নিরাপত্তা ও কার্যকারিতা সন্তোষজনক হলেই কেবল কোনো ভ্যাকসিন ব্যবহারের অনুমোতি মিলবে। হেলথ কানাডা এ ব্যাপারে সব কানাডিয়ানকে নিশ্চয়তা দিচ্ছে।


[email protected] Weekly Bengali Times

-->