শনিবার | ১৯ জুন ২০২১ | টরন্টো | কানাডা |

Breaking News:

  • ইসলামোফোবিয়া বন্ধের পরিকল্পনা প্রণয়নের দাবি
  • গ্রীষ্মের শুরুতে কানাডার অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যাশা
বেদনার অনুভবে পার্থক্যটা কি

: ৬ জুন ২০২১ | আব্দুল হালিম মিয়া |

ছবি/টিম হরটনস

কানাডায় বিখ্যাত ও জনপ্রিয় দুটো ফাষ্টফুড রেস্টুরেন্টের নাম টিম হরটন ও ম্যাকডোনাল্ডস। সেখানে শুকুর এবং গরুর মাংসের খাবার পাশাপাশি অবস্হান করে এবং ক্রেতার চাহিদা অনুযায়ী পরিবেশন করা হয়। হিন্দু এবং মুসলমান উভয় সম্প্রদায়ের লোকেরা কেউ কোন আপত্তি না করে যার যার পছন্দমত খাবারটি অর্ডার করে দীর্ঘদিন যাবত মহা আনন্দে দিনাতিপাত করিয়া চলিয়াছেন।

এখানকার অফিস আদালতে কোন পার্টি হলে সেখানেও পর্ক মানে শুকুর এবং বিফ মানে গরুর বার্গার বা স্যান্ডউইচ একটা নিত্য নৈমত্তিক ব্যাপার। অনেক সময় খাবারের গায়ে ট্যাগ লাগানোও থাকে না ফলে বুঝা যায় না কোনটা কি দিয়ে তৈরী। সার্ভার বা ক্যটারার উপস্হিত থাকলে আমার মত অতি উৎসাহীরা জিজ্ঞেস করে নেই যে কোন খাবারটা কিসের দ্বারা প্রস্তুত। কখনো কখনো মানুষ যে ভুল করে পর্ক বা বিফের স্যান্ডউইচ খেয়ে ফেলে না তা কিন্তু নয়। তবে এসব নিয়ে কারো কোন হৈচৈ নেই এখানে। সবাই শান্তিমত বসবাস করছে। মেন্যু আছে, তালিকা আছে, যার যেটা পছন্দ সে সেটা অর্ডার দিচ্ছে।

অথচ বাংলাদেশে সুপ্রিম কোর্টের ক্যান্টিনে গরুর গোশত বা শুকুরের খাবার থাকলে এবং সেটা যদি ট্যাগ বা লেবেল দিয়ে চিহ্নিত করা থাকে তাহলে আপত্তির কি আছে আমি ঠিক বুঝতে পারলাম না!

এসব আসলে কিসের আলামত? ভাল পানি ঘোলা করা নাকি ঘোলা পানি ভাল করা?


[email protected] Weekly Bengali Times

-->