শনিবার | ১৯ জুন ২০২১ | টরন্টো | কানাডা |

Breaking News:

  • ইসলামোফোবিয়া বন্ধের পরিকল্পনা প্রণয়নের দাবি
  • গ্রীষ্মের শুরুতে কানাডার অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যাশা
অন্টারিও ভ্যাকসিন ম্যাচিং

: ৬ জুন ২০২১ | রেজাউল ইসলাম |

ফাইল ছবি

আমার আসলে কিছু বিষয় জানার ছিল। কোন গবেষক বা বিজ্ঞান জানা ব্যক্তি আমার প্রশ্নের উত্তর দিতে পারেন। 

কানাডাতে ডাক্তাররা ভ্যাক্সিন মিক্সিংয়ের জন্য সুপারিশ করেছেন। 

ভালো কথা। সাধুবাদ জানাই। 

আমার প্রশ্ন হচ্ছে। 

ফাইজার আর মডার্না ভ্যাক্সিন একই mRNA টেকনোলজি দিয়ে তৈরি। 

আবার এস্ট্রোজেনিকা,জনসন এন্ড জনসন,সুটনিক-৫ ভ্যাক্সিন ভাইরাল ভ্যাক্টর টেকনোলজি দিয়ে তৈরি। 

একই টেকনোলজির ভ্যাক্সিন মিক্সিং হতে পারে। যেমন, কেউ প্রথম ডোজ  ফাইজার নিলে দ্বিতীয় ডোজ  মডার্না নিতে পারে। কারন, উভয়ই mRNA ভ্যাক্সিন।  এখানকার ডাক্তাররা সুপারিশ করেছে,কেউ  এস্ট্রোজেনিকা প্রথম ডোজ নিয়ে থাকলে দ্বিতীয় ডোজ  ফাইজার অথবা মডার্না নিতে পারবে। 

প্রশ্নটা এখানেই। 

এস্ট্রোজেনিকা ভাইরাল ভ্যাক্টর ভ্যাক্সিন আর মডার্না,ফাইজার mRNA ভ্যাক্সিন। 

সেক্ষেত্রে ভিন্ন ভিন্ন টেকনোলজির ভ্যাক্সিন মিক্সিং স্বাস্থ্যের উপর  কোন বিরূপ প্রভাব ফেলবে না তো? 

ভিন্ন ভিন্ন টকনোলজির ভ্যাক্সিন দেহকে ভিন্ন ভিন্ন সংকেত দিবে। সেক্ষেত্রে দেহের যে এন্টিবডি ম্যাকানিজম আছে তা ভিন্ন ভিন্ন সংকেত পাবে । বিভ্রান্তও হয়ে যাতে পারে। 

কানাডিয়ান ডাক্তারদের এই সুপারিশ কি সঠিক বলে মনে হয়?

টরন্টো, কানাডা



[email protected] Weekly Bengali Times

-->