শনিবার | ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ | টরন্টো | কানাডা |

Breaking News:

  • অন্টারিওতে একাধিকবার প্রতিবাদের মুখে পড়েছেন জাস্টিন ট্রুডো
  • প্রদেশের সব স্কুল ৩০ সেপ্টেম্বর খোলা থাকবে
ভ্যাঙ্কুভার সানের ছবি ও আমার কিছুকথা

: ৬ জুন ২০২১ | সুব্রত কুমার দাস |

ছবি/ব্রিটিশ কলাম্বিয়া ভ্যাঙ্কুভার সান

ছবিটি ছাপা হয়েছে কানাডার সর্বপশ্চিমের প্রদেশ ব্রিটিশ কলাম্বিয়া ভ্যাঙ্কুভার সান পত্রিকায়। ভ্যাঙ্কুভার আর্ট গ্যালারির সিড়িতে ২১৫টি শিশুর স্মৃতি চিহ্নকে এভাবে সম্মান দেখানো হয়েছে। সম্প্রতি সেখানকার কামলুপস নামের জায়গায় বন্ধ হয়ে যাওয়া এক আবাসিক বিদ্যালয় চত্বরে পুঁতে রাখা রেকর্ডবিহীন ২১৫ শিশুর দেহাবশেষ আবিষ্কারের পর প্রতিবাদে ভেঙ্গে পড়েছে মানুষ।

কয়েকদিন আগে কানাডা প্রসঙ্গে আমি পোস্ট দিয়েছিলাম যে রবীন্দ্রনাথ ১৯১৬ সালে ঘোষণা দিয়েছিলেন তিনি কোনোদিন অমানবিক কানাডায় আসবেন না। তখন অনেক বন্ধু মনে কষ্ট পেয়েছিলেন এই ভেবে যে আমি কানাডাকে অমানবিক বললাম। সেই বন্ধুরা ভুলে যান কানাডার ইতিহাস উপনিবেশের ইতিহাস। গত ৫০-৫৫ বছরে যে কানাডাকে আপনি দেখছেন কানাডার অতীত সেটি নয়। তবে আমাদের সৌভাগ্য এই যে আমরা যে কানাডায় থাকি, সেখানকার সরকার অতীতের অন্যায় কাজের জন্যে ক্ষমা চায়, বারবার চায়। যে কারণে রবীন্দ্রনাথ অমানবিক বলেছিলেন সেই কোমাগাতা মারু জাহাজের ঘটনার কারণেও কানাডার দুই দুইজন প্রধানমন্ত্রী ক্ষমা চেয়েছেন।

২১৫ শিশুর মৃতদেহ আবিষ্কারের পেছনে আছে ব্রিটিশ শাসক কর্তৃক  এখানকার  আদিবাসী মানুষদের জোর করে শিক্ষাদানের চেষ্টা।আদিবাসীদের সন্তানদের জন্য শিক্ষা বাধ্যতামূলক করেছিল তারা। চালু করেছিল বাধ্যতামূলক আবাসিক বিদ্যালয়।

গত  ১০০ বছরে কানাডার আনুমানিক ১ লাখ ৫০ হাজার  আদিবাসী শিশুকে বাধ্যতামূলক আবাসিক বিদ্যালয়ে শিক্ষা দেওয়া হয়েছে। শৃঙ্খলা ভঙ্গের জন্যে সে বিদ্যালয়গুলোতে ছিল কঠিন শাস্তির ব্যবস্থা। ছিল যৌন নিপীড়নসহ বহুবিধ অত্যাচার। আর এই সব অত্যাচারে মৃত্যুবরণকারী শিশুর সংখ্যা প্রায় ৬ হাজার বলে অনুমান করা হয়।

মাটি খুড়লে ইতিহাস বেরুবেই। অন্যায়কারীর, অত্যাচারীর মুখোশ একদিন-না-একদিন খুলে পড়বেই।

টরন্টো, কানাডা


[email protected] Weekly Bengali Times

-->