শুক্রবার | ১৮ জুন ২০২১ | টরন্টো | কানাডা |

Breaking News:

  • ইসলামোফোবিয়া বন্ধের পরিকল্পনা প্রণয়নের দাবি
  • গ্রীষ্মের শুরুতে কানাডার অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়ানোর প্রত্যাশা
ফাইল ছবি

দ্বিতীয় ডোজের টাইমলাইন প্রকাশ করেছে অন্টারিও। টাইমলাইন অনুযায়ী, ৩১ মে শুরু হওয়া সপ্তাহে ৮০ বছর ও বেশি বয়সীরা দ্বিতীয় ডোজের ভ্যাকসিন নিতে পারবেন। ২১ মার্চ ও তার পরবর্তীতে যারা অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিন নিয়েছেন তারা দ্বিতীয় ডোজের জন্য যোগ্য বিবেচিত হবেন ৩১ মে। দুই ডোজের মাঝে বিরতি থাকবে ১২ সপ্তাহ। ৭০ বছর ও তার বেশি বয়সীরা দ্বিতীয় ডোজ নিতে পারবেন ১৪ জুন শুরু হওয়া সপ্তাহে। ৮ মার্চ শুরু হওয়া সপ্তাহ ও ১৮ এপ্রিলের মধ্যে যারা প্রথম ডোজের ভ্যাকসিন নিয়েছেন তারা দ্বিতীয় ডোজের জন্য যোগ্য বিবেচিত হবে ২৮ জুন শুরু হওয়া সপ্তাহে। যারা শারীরিকভাবে উচ্চ ঝুঁকিতে আছেন তাদের পাশাপাশি বিশেষ শিক্ষার সঙ্গে সম্পৃক্ত কর্মীরাও এই তালিকায় আসবেন।

১৯ এপ্রিল শুরু হওয়া সপ্তাহ থেকে ৯ মের মধ্যে যারা প্রথম ডোজের ভ্যাকসিন নিয়েছেন তারা দ্বিতীয় ডোজ নিতে পারবেন ১৯ জুলাই শুরু হওয়া সপ্তাহে। ৫০ বছর ও তার বেশি বয়সীদের পাশাপাশি উচ্চ ঝুঁকিতে থাকা ব্যক্তিরা এই তালিকার অন্তর্ভূক্ত হবেন।

১০ মে শুরু হওয়া সপ্তাহ ও ৩০ মের মধ্যে প্রথম ডোজের ভ্যাকসিন গ্রহীতারা দ্বিতীয় ডোজের জন্য যোগ্য হবেন ২ আগস্ট শুরু হওয়া সপ্তাহে। শারীরিক সমস্যায় ভোগা ব্যক্তিদের পাশাপাশি যাদের বাড়িতে থেকে কাজের সুযোগ নেই তারা পড়বেন এই শ্রেণিতে। ৯ ও ১৬ আগস্ট শুরু হওয়া সপ্তাহে দ্বিতীয় ডোজ নিতে পারবেন ১২ থেকে ২৫ বছর বয়সী যে কেউ। আর যেসব নাগরিক ৩১ মে শুরু হওয়া সপ্তাহ ও তার পরবর্তীতে ভ্যাকসিন নেবেন তারা দ্বিতীয় ডোজের ভ্যাকসিন পাবেন ৯ আগস্ট শুরু হওয়া সপ্তাহে। তবে দুই ডোজের মাঝখানের বিরতি কোনোমতেই ২৮ দিনের কম হওয়া চলবে না। এর আগে দ্বিতীয় ডোজের জন্য নাগরিকদের ১৬ সপ্তাহ বা ৪ মাস অপেক্ষা করার আহ্বান জানানো হয়েছিল। 

গ্রীষ্ম শেষ হওয়ার আগেই অধিকাংশ মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়ার আশা করছে অন্টারিও। সেজন্য নাগরিকদের অনুমিত সময়ের আগেই দ্বিতীয় ডোজের ভ্যাকসিনের জন্য পুনরায় বুকিং দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন কর্মকর্তারা। নাগরিকরা যদি দ্রুততম সময়ের মধ্যে ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ নিতে চান তাহলে যোগ্য বিবেচিত হওয়ার পর সেজন্য পুনরায় তাদেরকে বুকিং দেওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে। তবে কেউ যদি আগের দেওয়া বুকিংয়ের জন্য অপেক্ষা করতে চান তাতেও কোনো অসুবিধা নেই।


[email protected] Weekly Bengali Times

-->