মঙ্গলবার | ১১ মে ২০২১ | টরন্টো | কানাডা |

Breaking News:

  • কানাডায় শুরু হয়েছে গণহারে ভ্যাকসিন কার্যক্রম
  • কানাডার বিমানবন্দরে বন্দুকধারীর হামলায় একজন নিহত
অন্টারিও’র স্বাস্থ্যমন্ত্রী ক্রিস্টিন এলিয়ট...ছবি/ফাইল

কঠোর বিধি নিষেধ এবং টিকা প্রদানের মধ্যেই কানাডায় করোনা মহামারীর দ্বিতীয় পর্যায়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা কমছে না, বরং উদ্বেগজনকহারে বাড়ছে। কানাডার বিভিন্ন প্রদেশে ক্রমবর্ধমানহারে করোনাভাইরাস বেড়েই চলেছে। বিশেষ করে অন্টারিওতে উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে এর সংক্রমণ। সামাজিক দূরত্ব, স্বাস্থ্যবিধি, সরকার কর্তৃক বিভিন্ন বিধিনিষেধ দেয়া সত্বেও করোনাভাইরাসকে কোনোভাবেই নিয়ন্ত্রিত করা যাচ্ছে না। প্রদেশের বাসিন্দারা আশঙ্কার মধ্য দিয়ে দিনযাপন করছেন। এদিকে, অধিক সংখ্যক কোভিড রোগীর চিকিৎসা নিশ্চিত করতে ঐচ্ছিক অস্ত্রোপচারসহ জরুরি নয় এমন চিকিৎসা কমিয়ে আনতে শুরু করেছে অন্টারিওর হাসপাতালগুলো। এ ঘোষণা দিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ক্রিস্টিন এলিয়ট শুক্রবার বলেন, এ সিদ্ধান্তের ফলে অন্টারিওর হাসপাতালগুলোতে আইসিইউ সক্ষমতা এক হাজার শয্যা পর্যন্ত বেড়ে যাবে। 

উত্তর অন্টারিওর হাসপাতালগুলোকে জরুরি নয় এমন চিকিৎসা বন্ধ না করতে বলা হয়েছে। যদিও এক নথিতে তাদেরকেও জরুরি নয় এমন চিকিৎসা আগামীতে বন্ধ রাখার প্রস্তুতি নিতে বলা হয়েছে হাসপাতালগুলোকে। প্রয়োজন হলে কোন কোন কর্মীতে অন্য সিটিতে পাঠাতে হতে পারে তাদের তালিকাও প্রস্তুত করতে বলা হয়েছে হাসপাতালগুলোকে। 

সিক কিডস হাসপাতাল সোমবার জানিয়েছে, গ্রেটার টরন্টো এরিয়ার অন্যান্য হাসপাতাল থেকে শিশু রোগীদের গ্রহণ শুরু করেছে তারা। জিটিএ হসপিটাল ইনসিডেন্ট ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (আইএমএস) কমান্ড সেন্টারের নির্দেশনা অনুযায়ী, এর ফলে গুরুতর রোগীদের চিকিৎসা প্রদানকারী হাসপাতালগুলোর সক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে।


[email protected] Weekly Bengali Times

-->