মঙ্গলবার | ১১ মে ২০২১ | টরন্টো | কানাডা |

Breaking News:

  • কানাডায় শুরু হয়েছে গণহারে ভ্যাকসিন কার্যক্রম
  • কানাডার বিমানবন্দরে বন্দুকধারীর হামলায় একজন নিহত
অন্টারিও প্রিমিয়ার ডগ ফোর্ড



কানাডায় করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) মারাত্মক তৃতীয় ঢেউ ছড়িয়ে পড়েছে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। স্থানীয় সময় গত মঙ্গলবার তিনি বলেন, ‘সারা বিশ্বের দেশগুলো এই মহামারীতে করোনাভাইরাসের অত্যন্ত মারাত্মক তৃতীয় ঢেউয়ের মুখে পড়েছে। ঠিক এই মুহূর্তে কানাডার অবস্থাও তাই।’ করোনার তৃতীয় ঢেউয়ে দেশটিতে কোভিড-১৯ এর বিভিন্ন ভ্যারিয়েন্ট ছড়িয়ে পড়েছে বলে জানান ট্রুডো।

গত এক সপ্তাহ ধরে কানাডায় দৈনিক গড়ে ৫ হাজার ২০০ করোনা রোগী শনাক্ত হচ্ছে। মোট সংক্রমণের সংখ্যা ১০ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। এখন পর্যন্ত মারা গেছেন প্রায় ২৩ হাজার মানুষ। দেশটির সবচেয়ে জনবহুল প্রদেশ অন্টারিওতে শনিবার থেকে সীমিত আকারে লকডাউন আরোপ করা হয়েছে। তবে কিছু স্থানীয় স্বাস্থ্য কর্মকর্তা আরও কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। কুইবেক প্রদেশেও ব্যাপকহারে করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়েছে। দেশজুড়ে সংক্রমণের তৃতীয় ঢেউয়ের প্রকোপ বাড়তে থাকায় প্রদেশগুলোর ভ্যাকসিন কার্যক্রমে সহায়তার প্রস্তাব দিয়েছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। জবাবে অন্টারিওর প্রিমিয়ার ডগ ফোর্ড বলেছেন, তারা কেবল ভ্যাকসিনের নিরবচ্ছিন্ন সরবরাহ চান।

ইস্টার সানডের সপ্তাহে ফেডারেল সরকার প্রদেশগুলোতে কয়েক লাখ ডোজ ভ্যাকসিন সরবরাহ করেছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী প্যাটি হাইডু এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানিয়ে সোমবার টুইট করেন। টুইটে তিনি জানান, অন্টারিও ৪০ লাখ ডোজের কিছু ভ্যাকসিন পেয়েছে। এর মধ্যে ২৫ লাখ তারা প্রয়োগ করেছে।

প্রদেশের ভ্যাকসিনেশন কার্যক্রমের পক্ষে সমর্থন ব্যক্ত করে ডগ ফোর্ড বলেন, আমাদের হাতে থাকা প্রতি ডোজ ভ্যাকসিন, যারা অ্যাপয়ন্টমেন্ট নিয়েছেন তাদের জন্য বরাদ্দ হয়ে গেছে। আমাদের হাতে বর্তমানে যেসব ভ্যাকসিন আছে সেগুলো আমরা ইস্টারের সপ্তাহে পেয়েছি। ভ্যাকসিনেশনের গতি বাড়াতে আমাদের প্রয়োজন ফেডারেল সরকারের কাছ থেকে নির্ভরযোগ্য ও নিরবচ্ছিন্ন সরবরাহ। আশা করি, আমরা সেটা পাব।


[email protected] Weekly Bengali Times

-->