শুক্রবার | ২৩ এপ্রিল ২০২১ | টরন্টো | কানাডা |

Breaking News:

  • নতুন ভ্যারিয়েন্ট কানাডাকে আবৃত করে ফেলতে যাচ্ছে : ট্রুডো
  • ভ্যাকসিনেশনের গতি বাড়াতে প্রয়োজন নিরবচ্ছিন্ন সরবরাহ : ডগ ফোর্ড
ফাইল ছবি

গত ১৪ ফেব্রুয়ারিতে বিদেশ থেকে কানাডায় আসা যাত্রীদের তিন দিনের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিন চালু করে কানাডা সরকার।  সরকারের সিদ্ধান্ত অনুসারে, বিদেশ থেকে আসা যাত্রীদের বিমানবন্দরে বাধ্যতামূলক কোভিড টেস্ট করতে হয় এবং ফল না পাওয়া পর্যন্ত সরকার কর্তৃক নির্দিষ্ট করে দেওয়া হোটেলে কোয়ারেন্টিনে থাকতে হচ্ছে। কিন্তু এটিকে স্বেচ্ছাচারি ও বেঠিক দাবি করে তা বাতিল চেয়ে মামলা করেছিল কানাডিয়ান কনস্টিটিউশন ফাউন্ডেশন। তবে কানাডিয়ান কনস্টিটিউশনের এ মামলা খারিজ করে দিয়েছেন আদালত। 

কানাডায় প্রবেশকারী আন্তর্জাতিক যাত্রীদের বাধ্যতামূলকভাবে হোটেলে কোয়ারেন্টিনের নীতি অসাংবিধানিক মর্মে আদালতের কাছে আদেশ চেয়েছিল কানাডিয়ান কনস্টিটিউশন ফাউন্ডেশন। মুমূর্ষু পিতা/মাতাকে দেখতে দেশের বাইরে যাওয়া তিনজন কানাডিয়ানের পক্ষে আদালতে মামলাটি করেছিল ফাউন্ডেশন ।

মানবাধিকার প্রতিষ্ঠানটির আইন বিষয়ক পরিচালক ক্রিস্টিন ভ্যান জেইন আদালতের আদেশের পর বলেন, আমরএই ফলাফল আমরা চাইনি। তবে আবেদনকারীদের প্রত্যেকেরই যে সহানুভূতি পাওয়ার মতো গল্প আছে সেই স্বীকৃতি দিয়েছেন আদালত। আবেদনটি খারিজ করে দিয়ে বিচারপতি ফ্রেডেরিক এল. মায়ার্স বলেন, কোভিড-১৯ ও নতুন ভ্যারিয়েন্টের বিস্তার রোধের বিষয়টি আবেদনকারীর তুলে ধরা যুক্তির চেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ।