রবিবার | ৭ মার্চ ২০২১ | টরন্টো | কানাডা |

Breaking News:

  • ৮ মার্চ টরন্টোর ওপর থেকে জনস্বাস্থ-সংক্রান্ত কিছু বিধিনিষেধ প্রত্যাহার হতে পারে
  • নকল এড়াতে ভ্যাকসিন সরবরাহ ব্যবস্থা সতর্কতার সঙ্গে দেখভাল করছে কানাডা
ফাইল ছবি

উইঘুর মুসলিমদের বিরুদ্ধে নেওয়া চীনের নিপীড়নমূলক পদক্ষেপকে ‘জেনোসাইড তথা গণহত্যা’ আখ্যা দিয়ে একটি নন-বাইন্ডিং প্রস্তাব পাস করেছে কানাডার পার্লামেন্ট। এতে একই ধরনের অবস্থান নিতে প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডোর সরকারের ওপর চাপ বাড়লো। সোমবার হাউস অব কমনসে বিরোধী দল কনজারভেটিভ পার্টির উত্থাপিত এই প্রস্তাবটি ২৬৬-০ ভোটে পাসে হয়। অবশ্য ট্রুডো এবং তার মন্ত্রিসভার প্রায় সব সদস্য ভোটদানে বিরত ছিল।

এদিকে প্রস্তাবটি ভোটাভুটিতে দেওয়ার আগমুহূর্তে একটি সংশোধনী আনা হয়। এতে উইঘুরদের বিরুদ্ধে যদি নিপীড়ন অব্যাহত থাকে, তাহলে বেইজিং থেকে ২০২২ সালের শীতকালীন অলিম্পিক সরিয়ে নিতে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির প্রতি আহ্বান জানানো হয়।

ভোটাভুটির পর কনজারভেটিভ পার্টির নেতা এরিন ও’টুলে সাংবাদিকদের বলেন, ‘১০ লাখের বেশি উইঘুর এবং অন্যান্য তুর্কি মুসলিম বন্দিশিবিরে আটক রয়েছে। সাক্ষী এবং বেঁচেফেরাদের কাছ থেকে যেসব সাক্ষ্য-প্রমাণ শুনছি তা শিউরে ওঠার মতো।’

তবে এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে চীন। কানাডায় নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত কং পেইউ কনজারভেটিভ পার্টির এই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছেন। তিনি বলেন, ‘জিনজিয়াংয়ে তথাকথিত গণহত্যা একেবারেই নেই।’