বুধবার | ২০ জানুয়ারী ২০২১ | টরন্টো | কানাডা |

Breaking News:

  • কানাডা-যুক্তরাষ্ট্র সীমান্তে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বাড়ল
  • কানাডায় করোনা সংক্রমণ উদ্বেগজনকহারে বাড়ছে
আগামী বছর কানাডায় বাড়তে পারে বাড়ির দাম

: ২০ ডিসেম্বর ২০২০ | দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক |

ফাইল ছবি

কানাডায় স্থায়ীভাবে বসবাস করা প্রবাসীদের কাছে বাড়ি বা এপার্টমেন্ট(যা কানাডায় কন্ডো নামে পরিচিত) একটা স্বপ্ন। শুধু একটা নিজের থাকার জায়গা হিসেবেই নয় এটা একটা বিনিয়োগও বটে। অনেকেই মনে করেন, এই সম্পদ কোন সময়ে বিক্রি করলেও সে থেকে লাভ পাওয়া যায়। সেই অর্থে এটা একটা ভাল বিনিয়োগ। টরন্টোর অর্থনীতিতেও রিয়েল এস্টেটের ভূমিকা অনেকখানি। করোনাভাইরাস মহামারির কারণে অর্থনৈতিক অনিশ্চয়তা, কনডোমিনিয়াম বাজারের নিস্তেজতা ও ক্রয় ক্ষমতা হ্রাস পাওয়ার কারণে বাড়ির দাম আগামী বছর ৫ দশমিক ৫ শতাংশ বাড়তে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে কানাডার রিয়েল এস্টেট ব্রোকারেজ প্রতিষ্ঠান রয়্যাল লাপেজ। বিক্রির উপযোগী বাড়ির স্বল্পতা ও অস্বাভাবিক কম সুদে ঋণ প্রাপ্তি বাড়ির দাম বৃদ্ধিতে ভূমিকা রাখবে বলে মনে করছে প্রতিষ্ঠানটি। জনজীবন স্বাভাবিক হতে শুরু করায় সিঙ্গেল-ফ্যামিলি হাউস থেকে বড় বাড়িতে স্থানান্তর মোটামুটি হারে বাড়বে বলে মনে করছে রয়্যাল লাপেজ। কানাডার অধিকাংশ বড় শহরে কনডোমিনিয়ামের বাজারের অবস্থাও ভালোই থাকবে আগামী বছর। ব্যতিক্রম দেখা যাবে কেবল টরন্টোতে। শহরটিতে কনডোমিনিয়ামের চাহিদা সেভাবে বাড়তে দেখা যাচ্ছে না।

রয়্যাল লাপেজের এ পূর্বাভাস কানাডিয়ান মর্টগেজ ও হাউজিং কর্পোরেশনের অনুমানের সঙ্গে মিলছে না। কারণ, ২০২১ সালে কানাডায় বাড়ির দাম কমবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে তারা।

তবে রয়্যাল লাপেজের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ফিল সপার বলছেন, সরবরাহ স্বল্পতার কারণে আগামী বছর বাড়ির দাম বৃদ্ধি অব্যাহত থাকবে। ঋণের সুদহার রেকর্ড সর্বনিম্নে রাখার যে প্রতিশ্রুতি নীতি নির্ধারকরা দিয়েছেন, সেটিও দাম বাড়াতে ভূমিকা রাখবে।

কানাডিয়ান রিয়েল এস্টেট অ্যাসোসিয়েশনের তথ্যমতে, গত অক্টোবরে কানাডায় বাড়ির দাম গত বছরের একই সময়ের তুলনায় গড়ে ১৫ শতাংশ বেড়েছে।