শুক্রবার | ২৩ এপ্রিল ২০২১ | টরন্টো | কানাডা |

Breaking News:

  • নতুন ভ্যারিয়েন্ট কানাডাকে আবৃত করে ফেলতে যাচ্ছে : ট্রুডো
  • ভ্যাকসিনেশনের গতি বাড়াতে প্রয়োজন নিরবচ্ছিন্ন সরবরাহ : ডগ ফোর্ড
অন্টারিওতে করোনা সংক্রমণ বেড়েই চলেছে

: ১৪ ডিসেম্বর ২০২০ | দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক |

করোনা সংক্রমণ রেকর্ডসংখ্যায় পৌঁছেছে

এদিকে কানাডার প্রধান চারটি প্রদেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। এতে অন্টারিও প্রদেশের তিনটি প্রধান অঞ্চল টরন্টো, অটোয়া এবং পিল রিজিওনের জন্য সীমাবদ্ধতা জোরদার করা হয়েছে। শনিবার ২৮ দিনের জন্য কার্যকর হওয়া পদক্ষেপগুলির মধ্যে রেস্তোরাঁ ও বারগুলির ভেতরে খাওয়া দাওয়া নিষিদ্ধ করা এবং জিম, সিনেমা থিয়েটার এবং ক্যাসিনো বন্ধ করা হয়েছে। গত সপ্তাহান্তে অন্টারিও প্রদেশে লাগাতার দ্বিতীয় দিনের মতো করোনা সংক্রমণ রেকর্ডসংখ্যায় পৌঁছেছে অর্থাৎ তা ১৯০০ ছাড়িয়ে গেছে। এতে স্বাস্থ্য কর্মকর্তরা জানিয়েছেন, সে সংখ্যা রোববার ছিল ১৯২৪ এবং শনিবার ১৮৫৯। ফলে রোববার সকাল নাগাদ ৭০১ জন কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগী অন্টারিও প্রদেশের হাসপাতালগুলোতে চিকিৎসার জন্য শরণাপন্ন হন, যদিও সে সংখ্যা শনিবারের তুলনায় কিছুটা কম ছিল। তাদের মাঝে আগের দিনের ২০২ জনের পরিবর্তে কমপক্ষে ২০৪ জন রোগীকে নিবিড় চিকিৎসা অর্থাৎ ইনটেনসিভ কেয়ারে রাখা হয়েছে। এদের মাঝে ১০৯ জনই ভেন্টিলেটরের সহায়তায় নিঃশ্বাস-প্রশ্বাস নিচ্ছেন। এছাড়া ওই সময়ের ২৪ ঘন্টায় ১৫ জনের মৃত্যু ঘটেছে, যা নিয়ে প্রদেশে মৃত্যুসংখ্যা ৩ হাজার ৭২২ জনে উন্নীত হয়েছে। 

তবে আশার কথা হচ্ছে, এখন পর্যন্ত ১ হাজার ৫৭৪ জন করোনামুক্ত হতে পেরেছেন। সেই সঙ্গে অন্টারিও প্রদেশে ১ লাখ ৭ হাজারের উপরে করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি মহামারির সূচনাকাল থেকে করোনামুক্ত হয়েছেন। ওই বিবেচনায় মৃত্যু ও করোনামুক্তির সংখ্যা হচ্ছে ১ লাখ ২৭ হাজার ৩০৯ জন। এতে ওই সপ্তাহান্তের ২৪ ঘন্টায় ৫৯ হাজার ২৫১ জনের করোনা পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে এবং সেই ভিত্তিতে করোনা সংক্রমণের হার ৩ দশমিক ২ শতাংশ। 

এক সংবাদ সম্মেলনে অন্টারিওর প্রিমিয়ার ডগ ফোর্ড বলেন, ‘সমস্ত প্রবণতা ভুল পথে চলেছে’, মহামারি ‘উদ্বেগজনক হারে’ দ্রুতগতিতে বেড়ে চলেছে। তিনি বলেন, যদি বর্তমান প্রবণতা অব্যাহত থাকে তবে ৩০ দিনেরও কম সময়ের মধ্যে হাসপাতালগুলিতে নিবিড় পরিচর্যা ইউনিট প্লেসমেন্টগুলি ট্রিপল হতে পারে। এদিকে কানাডার টরন্টোতে মহামারির প্রথম ধাপের সংক্রমণের হারকেও ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে সতর্ক করেছেন টরন্টো সিটির শীর্ষ চিকিৎসক আইলিন ডি ভিলা।