বুধবার | ২০ জানুয়ারী ২০২১ | টরন্টো | কানাডা |

Breaking News:

  • কানাডা-যুক্তরাষ্ট্র সীমান্তে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বাড়ল
  • কানাডায় করোনা সংক্রমণ উদ্বেগজনকহারে বাড়ছে
কানাডিয়ানদের স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে মেনে চলার আহ্বান ট্রুডোর

: ২২ নভেম্বর ২০২০ | দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক |

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো

কানাডায় করোনা মহামারীর দ্বিতীয় পর্যায়ে আক্রান্তের সংখ্যা উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে। বিভিন্ন প্রদেশে ক্রমবর্ধমানহারে করোনাভাইরাস বেড়ে যাওয়ায় জনমনে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

কানাডার প্রধান চার প্রদেশ অন্টারিও, ব্রিটিশ কলম্বিয়া, আলবার্টা এবং কুইবেকে উদ্বেগজনকভাবে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধির কারণে হাসপাতাল, নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে ব্যাপকহারে চাপ পড়ছে। কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো কানাডিয়ানদের সতর্ক করে বলেছেন- সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি না মানলে সামনে কঠিন সময় অপেক্ষা করছে। শুক্রবার রিডাউ কটেজে তার বাড়ির বাইরে সংবাদ সম্মেলনে ট্রুডো কানাডিয়ানদের বাড়িতে থাকতে এবং স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে মেনে চলার আহ্বান জানান।

উল্লেখ্য, বিভিন্ন প্রদেশের স্থানীয় নীতিনির্ধারকরা একের পর এক বিধিনিষেধ আরোপিত করছেন। আর এ বিধিনিষেধ শুধু অফিস-আদালতেই সীমাবদ্ধ নয়; সামাজিকভাবে জনসমাগম এড়িয়ে চলতে স্থানীয়দের একে-অপরের বাড়িতে কম যাতায়ত এবং যথাসাধ্য মাস্ক ব্যবহারের আহ্বান জানাচ্ছেন।

এদিকে, কানাডার টরন্টো ও পিল অঞ্চলে সোমবার থেকে লকডাউনের ঘোষণা দিয়েছে সরকার। লকডাউনে জিমনেসিয়াম ও ব্যক্তিগত পরিষেবাসহ জরুরি নয়, এমন সব ব্যবসা-বাণিজ্য বন্ধ থাকবে এবং লকডাউনের আওতায় হটস্পট এলাকাগুলোতে হোটেল-রেস্টুরেন্টে বসে খাওয়া যাবে না।

সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, কানাডায় এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ ২৫ হাজার ৭১১ জন, মৃত্যুবরণ করেছেন ১১ হাজার ৪০৬ এবং সুস্থ হয়েছেন ২ লাখ ৬০ হাজার ৩৯৮ জন।