বুধবার | ২৫ নভেম্বর ২০২০ | টরন্টো | কানাডা |

Breaking News:

  • ১০০ বছর আগে চুরি যাওয়া মূর্তি ভারতকে ফিরিয়ে দিচ্ছে কানাডা
  • কানাডার টরন্টো ও পিল অঞ্চলে লকডাউন ঘোষণা
কানাডায় অনেক বিখ্যাত রেস্তোরাঁ বন্ধ হওয়ার পথে

: ৯ নভেম্বর ২০২০ | দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক |


করোনা ভাইরাসের কারণে কানাডায় রেস্তারা ব্যবসায় এমনিতেই মন্দা তার উপর রেস্তারা খোলার ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা থাকায় এ ব্যবসা এখন ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে চলে এসেছে।

শিগগিরই যদি মহামারির অবসান না হয় ও আর্থিক সহায়তা না পেলে কিংবা ইনডোর ডাইনিংয়ের (রেস্তোরাঁয় বসে খাওয়া) ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার না হলে কানাডার অনেক বিখ্যাত রেস্তোরাঁ পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যেতে পারে। এমন আশঙ্কায় করেছেন রেস্তোরাঁ ব্যবসায়ীরা। 

এই আশঙ্কার কথা ব্যক্ত করে এসআইআর করপোরেশনের প্রেসিডেন্ট পল বোনার বলেন, আমাদের সামনে এখন একটা আশা। আর তা হলো- রেস্তোরাঁ থেকে কোভিড-১৯ যাতে না ছড়ায় সে জন্য যে আমরা লাখো ডলার ব্যয় করেছি, সেটি জনগণের বুঝতে পারা। সরকারের কাছ থেকে যদি সহায়তা না পাওয়া যায়, তাহলে বিদ্যমান পরিস্থিতিতে ফ্রেব্রুয়ারির মধ্যেই আমাদের ব্যবসা বড় ধরনের ঝুঁকিতে পড়বে।

অবস্থা দেখে বুঝতে বাকি নেই যে, রেস্তোরাঁ মালিকরা প্রিমিয়ার ডগলাস ফোর্ডসহ টরন্টো, অটোয়া, মিসিসাউগা ও ব্রাম্পটনের মেয়রদের ওপর ভালোই চাপ সৃষ্টি করছেন। মেয়ররা তাদের ২৮ দিনের ফেজ ২-লাইট লকডাউনের মাঝামাঝি রয়েছেন। 

সেলিব্রিটি শেফ মার্ক ম্যাকইভান এরই মধ্যে নেতাদের প্রতি সাহসী হওয়ার আহ্বান জানিয়ে রেস্তোরাঁগুলো যাতে সতর্কতার সাথে কার্যক্রম চালাতে পারে সে পদক্ষেপ নিতে বলেছেন, যাতে করে তারা অন্তত টিকে থাকার সুযোগটা পায়।

ডগলাস ফোর্ড এর প্রতিক্রিয়ায় বলেছেন, মার্ক ম্যাকইভানের প্রতি আমার গভীর শ্রদ্ধা রয়েছে। তিনি মহৎ একজন উদ্যোক্তা ও বিখ্যাত রেস্তোরাঁর মালিক। কিন্তু দু:খজনক হলো মার্ক ডাক্তার নন, তিনি একজন ব্যবসায়ী। তার দাবির প্রতি শ্রদ্ধা রেখেই বলছি, রাজ্যের প্রতিটি মানুষের স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও নিরাপত্তার প্রতি আমাদের মনোযোগ দিতেই হবে।