কোহলিদের কাছে কলকাতার আত্মসমপর্ণ

১৩ অক্টোবর ২০২০


কোহলিদের কাছে কলকাতার আত্মসমপর্ণ

কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিপক্ষে ডি ভিলিয়ার্স ঝড়ে বড় জয় পেয়েছে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু। ৮২ রানের দারুণ জয়ে আইপিএলের পয়েন্ট টেবিলের তৃতীয় স্থানে উঠে এসেছে কোহলিবাহিনী। ৭ ম্যাচ থেকে তাদের সংগ্রহ ১০ পয়েন্ট। অন্যদিকে সমান ম্যাচ থেকে ৮ পয়েন্ট নিয়ে কলকাতা আছে পয়েন্ট টেবিলের চতুর্থ স্থানে।

সোমবার রাতে শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ডি ভিলিয়ার্সের দুর্দান্ত ৭৩ রানের ঝড়ো ইনিংসের সুবাদে ২ উইকেটে ১৯৪ রান তোলে বেঙ্গালুরু। জবাবে ৯ উইকেট হারিয়ে ১১২ রানের বেশি করতে পারেনি কেকেআর।

টস জিতে বেঙ্গালুরু ব্যাট করতে নেমে ৬৭ রানের মাথায় প্রথম উইকেট হারায়। আন্দ্রে রাসেলের বলে বোল্ড হওয়ার আগে ২৩ বলে ৪ চার ও ১ ছক্কায় ৩২ রান করে যান দেবদূত পাদিক্কাল। ৯৪ রানের মাথায় প্রসিদ্ধ কৃষ্ণার বলে বোল্ড হন অ্যারোন ফিঞ্চ। ৩৭ বলে ৪ চার ও ১ ছক্কায় ৪৭ রান করে যান তিনি।

এরপর অধিনায়ক বিরাট কোহলির সঙ্গে যোগ দেন ডি ভিলিয়ার্স। ব্যাট হাতে ঝড় তোলেন ডি ভিলিয়ার্স। দ্রুতই বাড়তে থাকে রানের চাকা। শেষ পর্যন্ত অপরাজিত ১০০ রানের জুটি গড়েন তারা। ডি ভিলিয়ার্স ৩৩ বলে ৫টি চার ও ৬ ছক্কায় অপরাজিত ৭৩ রান করেন। তার স্ট্রাইক রেট ছিল ২২১.২১। কোহলি ২৮ বলে ১ চারে অপরাজিত থাকেন ৩৩ রানে।

১৯৫ রানের জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় কলকাতা। ব্যাট হাতে তিনজন মাত্র দুই অঙ্কের কোটায় রান করতে পারেন। তার মধ্যে শুভমান গিল সর্বোচ্চ ৩৪ রান করেন ৩ চার ও ১ ছক্কায়। ১৬টি করে রান করেন আন্দ্রে রাসেল ও রাহুল ত্রিপাঠি। বাকিদের রান ছিল সিঙ্গেল ডিজিটের। 

এর মধ্যে টম বানটন ৮, নিতিশ রানা ৯, ইয়ন মরগান ৮, অধিনায়ক দিনেশ কার্তিক ১, প্যাট কামিন্স ১, কমলেশ নাগরকোতি ৪ ও প্রসিদ্ধ কৃষ্ণার ব্যাট থেকে আসে ২ রান। তাতে ১৯৫ রানের বড় টার্গেটও তাদের ছোঁয়া হয়নি।

বেলাঙ্গুর হয়ে ক্রিস মরিস ২টি, ওয়াশিংটন সুন্দর ২টি, সাইনি, সিরাজ, চাহাল ও উদানা ১টি করে উইকেট নেন। ম্যাচসেরা নির্বাচিত হন ব্যাট হাতে ঝড় তোলা এবি ডি ভিলিয়ার্স।