বুধবার | ২ ডিসেম্বর ২০২০ | টরন্টো | কানাডা |

Breaking News:

  • কানাডায় একদিনে করোনা সংক্রমিত হয়ে মারা গেছেন ৬৬ জন
  • ভারতের কৃষক বিক্ষোভ নিয়ে জাস্টিন ট্রুডোর উদ্বেগ
লিবারেলদের ‘নিঃশেষ বুদ্ধিজীবি’ বলেছেন গ্রীন পার্টির নেতা

: ১১ অক্টোবর ২০২০ | মোহাম্মদ আলী বোখারী |

কানাডার গ্রীন পার্টির নব নির্বাচিত দলনেত্রী আন্নামি পল মনে করেন, লিবারেলরা ‘নিঃশেষ বুদ্ধিজীবি’। গত ৫ অক্টোবর এক সংবাদ সম্মেলনে টরন্টো সেন্টারের উপ-নির্বাচনে নিজের প্রার্থীতার ঘোষণার পাশাপাশি তিনি এ কথা বলেন। আরও বলেন, এতে তিনি হেরে গেলেও যে কোনো আসনে পরবর্তী সাধারণ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্ধিতা করবেন। 

তথাপি আন্নামি পল হচ্ছেন কানাডায় প্রথম কোনো কৃষ্ণাঙ্গ রাজনীতিক, যিনি জাতীয় পর্যায়ে বিস্তৃত গ্রীণ পার্টির দলনেতা হিসেবে অধিষ্ঠিত হলেন। আর তাই তার ভাষাতে ‘প্রথম’ হওয়ার অর্থ হচ্ছে, তাকে সর্বাধিক ত্যাগ স্বীকার করতে হবে তার অভীষ্ট লক্ষ্য অর্জনে। তার প্রত্যাশা, তিনি টরন্টো সেন্টার আসনে বিজয়ী হবেন। ২৬ অক্টোবর ওই উপ-নির্বাচনটি হওয়ার কথা। তাই সেখানে না জিতলে পরবর্তীতে অন্যত্র নির্বাচন করবেন। তার ভাষায়, ‘আমি যে কোনো আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আগ্রহী, যেখানেই গ্রীন পার্টির সদস্যরা মনে করবেন তা উপযুক্ত। আমার সন্তানেরা বড়ো হয়েছে, আমার স্বামী আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন মানবাধিকার আইনজীবি এবং তার সব কাজ-কর্মই কানাডার বাইরে। তাই আমার ব্যাগ ভ্রমণের ক্ষেত্রে সদা প্রস্তুত।’ এমনটাই রাজধানী অটোয়ায় আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে জানান। বলাবাহুল্য, ওই আসনটি হচ্ছে পদত্যাগী লিবারেল অর্থমন্ত্রী বিল মনরোর, যেখানে ক্ষমতাসীন লিবারেল পার্টি টেলিভিশন উপস্থাপিকা মার্সি ইয়েনকে সরাসরি মনোনয়ন দিয়েছে।

তাই গ্রীন পার্টির বিদায়ী দলনেত্রী এলিজাবেথ মে নতুন নির্বাচিত নেত্রীর প্রতি আস্থা জ্ঞাপন করে বলেন, অন্তত আন্নামি পলের ‘নেতৃত্বের সন্মার্থে’ এনডিপি যেন ওই উপ-নির্বাচনে কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী না দেয়। মে বলেন, যখন তিনি ব্রিটিশ কলাম্বিয়ার বার্নাবি সাউথ আসনে এনডিপি নেতা জগমিত সিংয়ের জন্য কোনো গ্রীন প্রার্থী দেননি, সে সময় সেটিকে ‘অত্যন্ত সৌজন্য সুলভ’ বলে আখ্যা দেন সিং। সে জন্য তিনি বলেন, ‘এ জন্য আমি জগমিত সিং-কে বিষয়টি ভাবতে বলবো। আর নিউ ডেমোক্রেটরাও জন্য সেই সৌজন্যতাকে উপলব্ধি করেন, যাতে রাজনৈতিক পরিমন্ডলে প্রথম কোনো কৃষ্ণাঙ্গ দলনেত্রীর সংসদে যাওয়ার পথে কোনো অন্তরায় সৃষ্টি না হয়।’

অবশ্য এনডিপি’র জাতীয় পরিচালক অ্যান ম্যাকগ্রার্থ টরন্টো সেন্টার আসনটি ফাঁকা ছাড়তে নারাজ। তার কথা, এনডিপি কখনোই বলেনি জগমিতের বিপক্ষে গ্রীন পার্টি যেনো প্রতিদ্ব›িদ্ব না দেয়। ম্যাকগ্রার্থের ভাষায় টরন্টো সেন্টার আসনের জন্য ইতিমধ্যে বেশ কিছু উল্লেখযোগ্য ব্যক্তি তাদের আগ্রহের কথা প্রকাশ করেছেন। তবু তিনি বলেন, ‘আমরা আন্নামি পল-কে গ্রীন পার্টির নতুন নেতা নির্বাচিত হওয়ায় অভিনন্দন জানাচ্ছি এবং তার উপ-নির্বাচনে সফলতা কামনা করছি।’

এদিকে পৃথিবীর জলবায়ু পরিবর্তনের বিষয়কে ‘অস্তিত্বের সংকট’ আখ্যা দিয়ে আন্নামি পল লিবারেলকে দোষারোপের পাশাপাশি অপরাপর দলগুলোকে মেধাহীনতায় ভুগছে বলে উল্লেখ করেন। তার ভাষায় এ বিষয়ে সরকারের সাম্প্রতিক ‘থর্ন স্পীচ’ বা রাজকীয় ভাষণ ছিল ‘কথার ফুলঝুঁড়ি’। তার ভাষায়, ‘দুঃখজনক হলেও কথার ফুলঝুঁড়ি আমাদের পরিকল্পনা নয়। তাই সত্যিকার পরিকল্পনা বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে গ্রীন পার্টির প্রতি ভোটারদের আস্থা জ্ঞাপন অপরিহার্য। কারণ, আমরা দেখতে পাচ্ছি অপরাপর দলগুলো নিঃশেষ বুদ্ধিজীবি।’