আজই বিশেষ বিমানে এডিস মশা নিধনে ওষুধের নমুনা আনা হবে

১ আগস্ট ২০১৯


আজই বিশেষ বিমানে এডিস মশা নিধনে ওষুধের নমুনা আনা হবে

বিশেষ বিমানে করে এডিস মশা নিধনে ওষুধের নমুনা আজই আনা হবে। হাইকোর্টকে জানিয়েছে দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি) । 

বৃহস্পতিবার সকালে হাইকোর্টকে তারা এ তথ্য জানায়। এর আগে গতকাল বুধবার ডেঙ্গু রোগের বাহক এডিস মশা নিধনে কার্যকরী ওষুধের নাম ও আমদানির প্রক্রিয়া জানাতে দুই সিটি করপোরেশনকে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। বিচারপতি তারিক উল হাকিম ও বিচারপতি মো. সোহরাওয়ার্দীর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।খবর সময় টিভির।

উত্তর সিটি করপোরেশনের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী ব্যারিস্টার তৌফিক ইনাম টিপু ও দক্ষিণ সিটির পক্ষে আইনজীবী এম.সাঈদ আহমদ রাজা। রাষ্ট্রপক্ষে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম, ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল কাজী মাঈনুল হাসান ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল সায়রা ফাইরোজ। আইনজীবী এম.সাঈদ আহমদ রাজা বলেন, আদালত আমাদের কাছে এডিস মশা নিধনে কার্যকরী ওষুধের নাম ও আমদানির প্রক্রিয়া জানাতে বলেছে। আমরা ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন অনুমোদিত ৫টি ওষুধের নাম হাইকোর্টে জমা দেব।

গত ২৫শে জুলাই ডিসিসি’র আইনজীবীরা ডোজ বাড়িয়ে চারদিন এডিশ মশার ওষুধ ছিটানোর অনুমতি চাইলে হাইকোর্ট বলেন, আপনারা ডোজ কতটুকু দেবেন। পরিমান বাড়াবেন, না কমাবেন। ওষুধ দুইবার ছিটাবেনা না চারবার ছিটাবেন- এটা আপনাদের ব্যাপার।

উল্লেখ্য, ১৪ই জুলাই এডিস মশা নির্মূল ও ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের মেয়রকে নির্দেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে ঢাকা শহরে ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়াসহ একই ধরনের অন্যান্য রোগের বিস্তার রোধে প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা নিতেও বলা হয়। আদালতের আদেশ স্বত্ত্বেও এডিস মশা নির্মূলে কার্যকর পদক্ষেপ না নেয়ায় গত ২২শে জুলাই দুই সিটির প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তাকে তলব করেন হাইকোর্ট। ওই তলবের প্রেক্ষিতে ২৫শে জুুলাই তারা হাজির হন।