কোভিড -১৯ মহামারি প্রাদুর্ভাবের পর কানাডায় আত্মহত্যার প্রবণতা বেড়েছে

১২ সেপ্টেম্বর ২০২০


কোভিড -১৯ মহামারি প্রাদুর্ভাবের পর কানাডায় আত্মহত্যার প্রবণতা বেড়েছে

কানাডার প্রায় ১৪ লাখ ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীর মানুষ চরম দারিদ্র্যের মধ্যে জীবন যাপন করে। তাদের আয়ু কানাডার গড় আয়ুর চেয়ে কম। সম্প্রতি ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠীর মানুষের মধ্যে আত্মহত্যার ঘটনা বেড়ে গেছে। বিশেষ করে করোনাকালীন সময়ে কৃষ্ণাঙ্গ কানাডিয়ানদের মধ্যে আত্মহত্যার প্রবণতা বেড়ে গেছে। কানাডায় প্রতি বছর গড়ে চার হাজার মানুষ আত্মহত্যা করে। আর প্রতিদিনের হিসেবে এটি দাঁড়ায় প্রায় ১১ জনে। আর মহামারি চলাকালীন সময়ে পরিস্থিতি আরো চরম আকার ধারণ করেছে। এতে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে দেশটির সরকার। আত্মহত্যা ঠেকাতে নেওয়া হয়েছে নানা পদক্ষেপ। প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মাঝে আত্মহত্যার প্রবণতা প্রতিরোধে ১১. ৫০ মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করবে কানাডা সরকার। আত্মহত্যা প্রতিরোধে দেয়া সেবা মার্চের তুলনায় জুলাইয়ে দ্বিগুণ করা হয়েছে। আত্মহত্যা প্রতিরোধে লোকদের আরো সহায়তা প্রয়োজন উল্লেখ করে  স্বাস্থ্যমন্ত্রী প্যাটি হাজদু বলেন, আমরা কোভিড -১৯ মহামারি প্রাদুর্ভাবের পর থেকেই দেশে আত্মহত্যার হার আরো বাড়তে দেখেছি।