কানাডায় যেকারণে বাবা-মা-বোন-নানীকে হত্যা করল বাংলাদেশি যুবক

৩০ জুলাই ২০১৯


কানাডায় যেকারণে বাবা-মা-বোন-নানীকে হত্যা করল বাংলাদেশি যুবক

কানাডায় একই বাড়িতে চার ‘বাংলাদেশী’কে হত্যার দায়ে ২৩ বছর বয়সী  মিনহাজ জামান নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, সেও বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত। তাকে একটি বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ঠিক ওই বাড়িতেই তিনজন নারী ও একজন পুরুষকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। বার্তা সংস্থা রয়টার্স কানাডার পুলিশকে উদ্ধৃত করে এ খবর দিয়েছে। অন্টারিওর মারখামে একটি আবাসিক ভবন থেকে স্থানীয় সময় রোববার বিকাল তিনটার সামান্য পরে ইয়র্ক রিজিয়নাল পুলিশে খবর যায়। এরপরই নিরাপত্তা হেফাজতে নেয়া হয় মিনহাজকে। কিছু মিডিয়ায় বলা হয়েছে, নিহত চারজনই বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত। তারা সবাই একই পরিবারের সদস্যও। তবে কর্মকর্তারা তাদের পরিচয় নিশ্চিত হওয়ার চেষ্টা করছিলেন। কয়েকদিনের মধ্যে করোনার রিপোর্ট পাওয়া যাবে বলে মনে করা হচ্ছে। এরপরই নিহতদের পরিচয় নিশ্চিত করবে পুলিশ। 

 'সন্তান নাস্তিক'- এই লজ্জা থেকে বাবা মাকে মুক্তি দিতে পরিবারের চারজনকে খুন করেছে মিনহাজ জামান। ‘পারফেক্ট ওয়ার্ল্ড ভয়েড’ নামের একটি অনলাইন গেমিং এ হত্যাকাণ্ড সম্পর্কে এই ধরনের মন্তব্য করে মিনহাজ লিখেছে, আমি হতাশায় নিমজ্জিত হয়েছি, নাস্তিক হয়েছি। শেষ পর্যন্ত এটাই (হত্যার) পরিকল্পনা করেছি। আমি চাইনি আমার মতো একজন সন্তানের জন্য আমার বাবা মা লজ্জিত হোক। অনলাইন গেমিং অপর সঙ্গীর সঙ্গে চ্যাটিং এর স্ক্রিনশট প্রকাশ করে এইসব তথ্য তুলে ধরেছে টরন্টোর সিটি নিউজ।

সিটি নিউজ তার নিউজে উল্লেখ করেছে, মিনহাজ পরিবারের  সদস্যদের হত্যাকাণ্ডের ছবিও অনলাইন গেমিং এ প্রকাশ করেছে। অপর বন্ধুর সঙ্গে চ্যাটিং এ হত্যার বেশ কিছু বিবরণও পাওয়া যায়। মিনহাজ উল্লেখ করেছে, প্রথমে সে তার মাকে হত্যা করে। পরে নানী, বোন এবং সবশেষে বাবাকে খুন করে।