প্রেমিকার স্বামীকে খুন করতে এসে গ্রেফতার ৪ বন্ধু

২৮ জুলাই ২০১৯


প্রেমিকার স্বামীকে খুন করতে এসে গ্রেফতার ৪ বন্ধু

বাগেরহাট থেকে প্রেমিকার স্বামীকে খুন করতে রাজশাহীতে নিয়ে আসে ৪ বন্ধু। শনিবার রাত সাড়ে আটটার দিকে জেলার চারঘাটের বাসুদেবপুর ফুলতলা বাজার এলাকা থেকে তাদের দু’জনকে ছেলে ধরা সন্দেহে আটক করে স্থানীয় জনতা পুলিশের হাতে তুলে দেয়। তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে রাজশাহী রেলস্টেশন থেকে আরো দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়।

তারা বাগেরহাটের মোল্লাহাট এলাকার সৌদি প্রবাসী তানিয়ার স্বামী কাঞ্চু শিকদার ওরফে কাঞ্চনকে খুন করতে রাজশাহী নিয়ে এসেছিল। রোববার দুপুরে রাজশাহী জেলা পুলিশ সুপারের সভা কে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান পুলিশ সুপার মো. শহীদুল্লাহ। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, বাগেরহাটের মোল্লাহাট এলাকার তানিয়ার পরকীয়া প্রেমিক রাসেল শেখ, নারায়নগঞ্জ জেলার ফতুল্লার মিরাজ হোসেন ও একই জেলার রুপগঞ্জ উপজেলার সজীব এবং পটুয়াখালী জেলার গলাচিপার কাউসার হোসেন। তারা পরস্পরের বন্ধু।

পুলিশ সুপার জানান, তারা বাগেরহাটের মোল্লাহাট এলাকার সৌদি প্রবাসী তানিয়ার স্বামী কাঞ্চু শিকদার ওরফে কাঞ্চনকে পাসপোর্ট করানোর কথা বলে রাজশাহী নিয়ে এসেছিল। কাঞ্চনকে খুন করার উদ্দেশ্য ছিল তাদের। আর এতে মূল পরিকল্পনাকারী ছিলেন কাঞ্চনের প্রবাসী স্ত্রী তানিয়া ও তার পরকীয়া প্রেমিক রাসেল শেখ। আটককৃত চারজন পুলিশকে এ মোতাবেক স্বীকারোক্তি দেয়।

তিনি জানান, পরিকল্পনামাফিক কাঞ্চনকে তারা রাজশাহীতে নিয়ে আসে। চারজনের দু’জন মিরাজ ও কাউসার শনিবার রাত সাড়ে আটটার দিকে চারঘাটের বাসুদেবপুরের ফুলতলা বাজারে ঘোরাঘুরি করছিল। স্থানীয়রা ছেলে ধরা সন্দেহে তাদের দু’জনকে আটক করে। পরে পুলিশে তুলে দেয়। তারা জানায়, তারা ছেলে ধরা নয়। তারা কাঞ্চনকে খুন করতে রাজশাহী নিয়ে এসেছে। তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে রাতেই বারোটার পরে রাজশাহী রেলস্টেশন থেকে অন্য দু’জন রাসেল শেখ ও সজীবকে আটক করা হয়। কাঞ্চনকে খুন করে সম্প্রতি ছেলে ধরা গুজবে খুন বলে চালিয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা করেছিল আটককৃতরা বলে জানায় পুলিশ।

এ ঘটনায় চারঘাট থানায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে বলে জানান পুলিশের এই উর্ধতন কর্মকর্তা।