সিরিজে ফিরতে লঙ্কানদের বিপক্ষে আজ মাঠে নামছেন তামিমরা

২৮ জুলাই ২০১৯


সিরিজে ফিরতে লঙ্কানদের বিপক্ষে আজ মাঠে নামছেন তামিমরা

লঙ্কান পেসার লাসিথ মালিঙ্গার বিদায়ের ম্যাচে শ্রীলংকার কাছে পাত্তাই পায়নি বাংলাদেশ। ব্যাটিং, বোলিং ব্যর্থতায় হেরেছে ৯১ রানে। ফলে, সিরিজ থেকে ছিটকে পড়ার আশঙ্কায় থাকা টাইগাররা সিরিজে ফিরতে মরিয়া। এ লক্ষ্যেই  দ্বিতীয় ওয়ানডেতে আজ রোববার লঙ্কানদের বিপক্ষে মাঠে নামছেন তামিমরা।  প্রথমটিতে হেরে ১-০ তে পিছিয়ে থাকা টাইগারদের এ ম্যাচে জয়ের কোনো বিকল্প নেই। শ্রীলংকার কলোম্বর প্রেমাদাসায় বাংলাদেশ সময় বিকাল ৩টায় শুরু হবে ম্যাচটি। 

কোনো সিরিজের প্রথমটিতে হারলে বেশিরভাগ সময় দলে পরিবর্তন আনা হয়ে থাকে। তবে আজকের ম্যাচে সে রকম কিছু হচ্ছে না বলেই খবর পাওয়া গেছে। আগের দল নিয়েই মাঠে নামার ইঙ্গিত দিয়েছে অন্তর্বর্তীকালীন কোচ ও সাবেক অধিনায়ক খালেদ মাহমুদ সুজন। প্রথম ওয়ানডেতে তামিম ইকবালের পরীক্ষামূলক ম্যাচে জয়ের আশা নিয়ে মাঠে নামলেও ব্যাটিং, বোলিং ও ফিল্ডিংয়ে চরম ব্যর্থতায় বড় ব্যবধানে হারতে হয়েছে। স্বাভাবিকভাবে এ ম্যাচে চাপটা একটু বেশি থাকবে সফরকারীদের ওপর। 

প্রথম ওয়ানডেতে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশের ছন্নছাড়া বোলিংকে কাজে লাগিয়ে ৩১৪ রানের বড় পুঁজি গড়ে লঙ্কানরা। ব্যাট হাতে ঝড়ো সেঞ্চুরি করেন কুশল পেরেরা। ৮২ বলে একদিনের ক্রিকেটে পঞ্চম সেঞ্চুরি তুলে নেন তিনি। শেষ পর্যন্ত ৯৯ বলে ১১১ রানে সাজঘরে ফেরেন এ লঙ্কান ওপেনার। 

বাংলাদেশের পক্ষে কোনো বোলারই সুবিধাজনক কিছু করে দেখাতে পারেননি। যদিও প্রায় সাড়ে ৩ বছর পর ওয়ানডে খেলতে নামা শফিউল ইসলাম নিজের দ্বিতীয় ওভারেই উইকেট তুলে নেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত রানের গতি নিয়ন্ত্রণ রাখতে পারেননি তিনি। ৬৮ রান দিয়ে নেন ৩ উইকেট। বাকিদের অবস্থা ছিল আরও নাজুক।

বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই চরম হোচট খায় টাইগাররা। ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচে খেলতে নামা মালিঙ্গার প্রথম ওভারে তামিম বোল্ট হয়ে ফিরলে তার পথ ধরেন আরও তিন ব্যাটসম্যান। ফলে দলীয় ৩৯ রান তুলতেই স্কোরবোর্ডে চার উইকেট নেই টাইগারদের। ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে মুশফিক ও সাব্বির রহমান লড়াই চালিয়ে গেলেও, শেষ পর্যন্ত তারা আর টানতে পারেননি। সিলভার স্পিন ঘুর্ণিতে সাব্বিরের বিদায়ের পর মুশফিকও তারই পথে হাটেন। ফলে ম্যাচ হারা সময়ের ব্যাপার হয়ে দাঁড়ায়। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ৫০ ওভারের অনেক আগেই ২২৩ রানেই গুটিয়ে যায় বাংলাদেশের ইনিংস। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ মুশফিকুর রহিম ৬৭ ও সাব্বির রহমান ৬০ রান করেন। তাইতো প্রথম ম্যাচের স্মৃতি ভুলে জয়ের আশায় মাঠে নামবে বাংলাদেশ।