স্ত্রী নন, প্রাক্তন প্রেমিকার হাত ধরে প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে প্রবেশ বরিস জনসনের?

২৫ জুলাই ২০১৯


স্ত্রী নন, প্রাক্তন প্রেমিকার হাত ধরে প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে প্রবেশ বরিস জনসনের?

১০ নং ডাউনিং স্ট্রিট সেজে উঠছে নতুন বাসিন্দাকে স্বাগত জানাতে৷ টেরেসা মে’র ছেড়ে আসা বাসভবনে এবার পা রাখবেন বরিস জনসন, ব্রিটেনের নতুন প্রধানমন্ত্রী৷ আর নিজের রাজনৈতিক কেরিয়ারের এমন এক চমকপ্রদ অধ্যায়ের শুরুতেই বিতর্কের মুখে পড়তে পারেন বরিস৷ ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে বরিসের সঙ্গে ফার্স্ট লেডি হিসেবে কে ঢুকছেন, সেই চর্চা শুরু হয়ে গিয়েছে ইতিমধ্যেই৷ গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে, বরিস ডিভোর্সি৷ তাই স্ত্রী’র বদলে প্রাক্তন বান্ধবীই নাকি তাঁর সঙ্গে থাকবেন৷ ১০, ডাউনিং স্ট্রিটে এমন জুটি এই প্রথম৷

কেরি সাইমন্ডস৷ বয়স মাত্র ৩১৷ একসময়ে কনজারভেটিভ পার্টির মুখ্য জনসংযোগ নেত্রী ছিলেন৷ সেসময় দলের শীর্ষ নেতা বরিসের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে তাঁর৷ কালক্রমে অবশ্য তা ভেঙেও যায়৷ বরিসের একাধিক স্ত্রী, সন্তান পরিবৃত জগতে কেরির উপস্থিতি আর বিশেষ নজর কাড়েনি৷ যদিও তিনি অন্তরালে থেকেই দলের কাজ করে গেছেন৷

সেই জীবনে আবার নতুন উন্মাদনা৷ ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী পদে লড়াইয়ের গোড়া থেকেই কেরিকে ফের দেখা যাচ্ছিল বরিসের পাশে পাশে৷ এমনকী প্রচারেও একদল সঙ্গীসাথীর মাঝে ক্যামেরায় ধরা পড়ছিল কেরি-বরিস জুটি৷ সেই থেকে সম্ভবত মরচে ধরা পুরনো প্রেম ফের ঝকঝকে, নতুন হয়ে উঠেছে৷ এরপর লড়াইয়ে ব্রেক্সিটপন্থী বরিস জনসনকেই বেছে নিয়েছেন ব্রিটিশরা৷ তিনিই আগামী ৫ বছরের জন্য দেশের প্রধানমন্ত্রী৷ নতুন বাসভবন ১০, ডাউনিং স্ট্রিট৷ সাধারণত স্ত্রী, সন্তান সকলকেই নিয়েই দেশের প্রধানমন্ত্রী থাকেন এই রাজপ্রাসাদে৷ কিন্তু বরিসের ক্ষেত্রে বিষয়টা অন্যরকম৷

বছর পঞ্চান্নর বরিস ডিভোর্সি৷ ২৫ বছর দাম্পত্যের পর স্ত্রী মারিনা হুইলারের সঙ্গে গত সেপ্টেম্বরেই বিচ্ছেদ হয়ে গিয়েছে৷ সন্তানরাও যে যার মতো ছড়িয়েছিটিয়ে রয়েছে৷ ফলে জীবনসঙ্গী বলতে সে অর্থে আপাতত বরিসের কেউ নেই, যাকে নিয়ে তিনি পা দেবেন নতুন বাড়িতে৷ কিন্তু একলা তো আর গৃহে প্রবেশ করতে পারেন না৷ আর এখানেই শুরু হয়েছে কানাঘুষো৷ তাহলে কি প্রাক্তন প্রেমিকা, বর্তমানে যাঁর সঙ্গে আবার দেখা দেশের নতুন প্রধানমন্ত্রীকে, সেই কেরি সাইমন্ডসের হাত ধরেই ডাউনিং স্ট্রিটের পেল্লাই প্রাসাদে পা রাখবেন লন্ডনের প্রাক্তন মেয়র?  এই সম্ভাবনা বিন্দুমাত্র উসকে উঠতেই চনমনে জনসাধারণ থেকে সাংবাদিক মহল৷ যদি বরিস-কেরি সত্যিই একত্রবাস শুরু করেন, তাহলে সারা বছর শিরোনামে থাকবে ১০, ডাউনিং স্ট্রিট৷ কারণ, এই বাড়ি থেকেই তো বেরবে রঙিন, মুচমুচে সব খবর! -সংবাদ প্রতিদিন