শনিবার | ৫ ডিসেম্বর ২০২০ | টরন্টো | কানাডা |

Breaking News:

  • কানাডায় করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ১২ হাজার ছাড়িয়েছে
  • ভ্যাকসিন নিয়ে ফেডারেল সরকারের কাজে ৬৬ শতাংশ কানাডিয়ান সন্তুষ্ট

দ্য বেঙ্গলি টাইমস ডটকম ডেস্ক

মানব সভ্যতার এক ঘৃণ্য অপরাধ ধর্ষণ। প্রায় প্রতিদিনিই আমাদের দেশে এ জাতীয় একাধিক অপরাধ হচ্ছে। আর আইনের ফাঁক ফোকড় দিয়ে পার পেয়ে যাচ্ছে অপরাধীরা। এছাড়া উপযুক্ত আইনের অভাবেও যথাযথ বিচার পাচ্ছেন না নির্যাতীতা মেয়েরা।

অথচ পৃথিবী জুড়ে ধর্ষণের অপরাধীদের শাস্তির নানান নিদর্শন রয়েছে ৷ পাথর দিয়ে মেরে মাথা ফাটানো, বিষপান করানো, যৌনাঙ্গ কেটে দেওয়া, ফাঁসিতে ঝোলানো, বিভিন্ন রাসায়নিক পদার্থ দিয়ে মেরে ফেলা ইত্যাদি ৷ এবার ধর্ষণ রুখতে অভিনব এক আইন পাস করেছে যুক্তরাষ্ট্রের আলাবামা রাজ্য সরকার। এই আইনে বলা হয়েছে, ১৩ বছরের কম বয়সী মেয়েকে ধর্ষণ করলে ইনজেকশন দিয়ে বা ওষুধের মাধ্যমে নপুংসক করে দেওয়া হবে ধর্ষককে।

নাবালিকাদের ধর্ষণের মতো অপরাধী থেকে বাঁচাতে এই আইন করা হয়েছে বলে জানা গেছে। আর সেই ইনজেকশনের একবার পুশ করলে ধর্ষক দ্বিতীয়বার কারো সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করতে পারবে না ৷ সারা জীবন ধরে বয়ে বেড়াতে হবে নিজের এই পাপের শাস্তি।

এই আইন অনুযায়ী কোনো অপরাধী যদি জেলে থাকেন তবে তাকে তখন ইনজেকশন দেয়া হবে না। তবে প্যারোলে ছাড়া পাওয়ার পর তার শরীরে এই পুশ করা হবে। আর কোনো কারণে তিনি যদি ইনজেকশন নিতে রাজি না হন, তাহলে আজীবন তাকে জেলেই থাকতে হবে ৷ কখনও বাইরে আসতে পারবেন না।