মানুষ যাতে খেয়ে-পরে বাঁচতে পারে সেজন্যই এই সিদ্ধান্ত: প্রধানমন্ত্রী

২ জুন ২০২০


মানুষ যাতে খেয়ে-পরে বাঁচতে পারে সেজন্যই এই সিদ্ধান্ত: প্রধানমন্ত্রী

করোনার প্রভাবে দেশের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডের গতিশীলতায় স্থবির অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, মানুষের জীবন বাঁচাতেই কিছু জায়গায় শর্ত শিথিলের ব্যবস্থা করা হয়েছে। মঙ্গলবার (০২ মে) সকালে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি- একনেক সভায় একথা বলেন তিনি। এ সময় সব হাসপাতালে অক্সিজেন সরবরাহের তাগিদ দেন প্রধানমন্ত্রী।

সামনে বাজেট অধিবেশন। নতুন অর্থ বছরের হিসেব মেলানোর ব্যস্ততা সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়গুলোতে। এরই মধ্যে মঙ্গলবার (০২ মে) বসলো জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি- একনেকের বৈঠক।

কোভিড-১৯ এর সাবধানতায় পরিকল্পনা কমিশনের এনইসি ভবনে বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয় ভিন্ন আঙ্গিকে। গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী। অন্যান্য মন্ত্রী ও সচিবসহ সংশ্লিষ্ট নীতিনির্ধারকরা সম্মেলন কক্ষ থেকেই অংশ নেন।

বৈঠকের শুরুতেই দেয়া সূচনা বক্তব্যে করোনা দুর্যোগে বাজেট ও প্রকল্প প্রণয়নে কাজ করার জন্য সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ জানান সরকারপ্রধান। বলেন, মানুষের কষ্ট লাঘবেই শর্ত শিথিল করে স্বাভাবিক জীবনে ফেরার উদ্যোগ নিতে হয়েছে। কঠোরভাবে স্বাস্থ্যবিধি মানার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সচেতনতা প্রয়োজন ব্যক্তি পর্যায় থেকেই।

পরে, বৈঠকের খুঁটিনাটি নিয়ে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন পরিকল্পনামন্ত্রী। জানান ৭ মন্ত্রণালয়ের ১০ প্রকল্পে ১৬ হাজার ২৭৬ কোটি ৩ লাখ টাকা অনুমোদন দেয়া হয়েছে। এ সময় হাসপাতালে অক্সিজেন সরবরাহ নিশ্চিতের তাগিদও দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।