লকডাউন এলাকার ব্যাংক-বুথে প্রয়োজনীয় নগদ অর্থ রাখার নির্দেশ

২২ মার্চ ২০২০


লকডাউন এলাকার ব্যাংক-বুথে প্রয়োজনীয় নগদ অর্থ রাখার নির্দেশ

বাংলাদেশ ব্যাংক। ফাইল ছবি

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে দেশের কোথাও ব্যাংক গ্রাহকদের নগদ অর্থের লেনদেন যাতে বাধাগ্রস্ত না হয় সেদিকে বিশেষ দৃষ্টি রাখার জন্য বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। একই সঙ্গে যেসব এলাকা বা অঞ্চল লকডাউন করা হচ্ছে সেসব এলাকায় অবস্থিত ব্যাংক বা ব্যাংকের বুথগুলোতেও প্রয়োজনীয় নগদ অর্থের জোগান নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে। গ্রাহকের নগদ লেনদেনের বিষয়টি নিশ্চিত করতে প্রয়োজনে স্থানীয় প্রশাসন ও আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলোর সহায়তা নিতে হবে।

রোববার বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে পাঠানো এক সার্কুলারে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোর প্রধান নির্বাহীদের এ নির্দেশ দেয়া হয়েছে। সার্কুলারে ব্যাংকগুলোকে জরুরিভিত্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।

অপর এক সার্কুলারের মাধ্যমে ব্যাংকগুলোতে তারল্য প্রবাহ আরও বাড়ানোর উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো সরকারি বন্ডে যেসব অর্থ বিনিয়োগ করেছে সেগুলোর মধ্যে তাদের বিধিবদ্ধ আমানত সংরক্ষণ করে অতিরিক্ত অর্থ থাকলে সেগুলো বাংলাদেশ ব্যাংকে বিক্রি করে নগদ অর্থ নিতে পারবে।

এতে বলা হয়েছে, দেশের ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর তারল্য ব্যবস্থাপনায় যাতে কোনো প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হতে না পারে সেজন্য বাংলাদেশ ব্যাংক এসব পদক্ষেপ নিয়েছে। সরকারি বন্ডগুলো সেকেন্ডারি মার্কেটে নিয়মিত লেনদেন হচ্ছে। এখন থেকে সরকারি বিভিন্ন বন্ড সেকেন্ডারি মার্কেট থেকে ক্রয় করবে বাংলাদেশ ব্যাংক। ব্যাংকগুলোর কাছে এসএলআর বাবদ অর্থ রাখার পর অতিরিক্ত বন্ড থাকলে সেগুলোও বাংলাদেশ ব্যাংক বাণিজ্যিক ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছ থেকে কিনে নেবে। এক্ষেত্রে প্রয়োজন মনে হলে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে বাংলাদেশ ব্যাংকে যোগাযোগ করার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

অপর এক সার্কুলারে সান্ধ্যকালীন ব্যাংকিং ব্যবস্থা বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এতে কিছু ক্ষেত্রে অনলাইন ব্যাংকিং, মোবাইল ব্যাংকিংয়ে বেশি লেনদেন করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।