অস্থির বিশ্ব অর্থনীতি : চীনের সাত ধনীর ক্ষতি ২৮ বিলিয়ন ডলার

২১ মার্চ ২০২০


অস্থির বিশ্ব অর্থনীতি : চীনের সাত ধনীর ক্ষতি ২৮ বিলিয়ন ডলার

করোনাভাইরাসের প্রভাবে বিশ্ব অর্থনীতিতে চলছে অস্থির অবস্থা। তাতে মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন চীনের ধনীরা। গত এক মাসের হিসেব অনুযায়ী কয়েক বিলিয়ন ডলার সম্পদ হারিয়েছেন তারা। আজ শুক্রবারের শেষে চীনের ১০ ধনী ধনীর সাতজনের ও তাদের পরিবারের সদস্যদের সম্পত্তি প্রায় ২৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার কমে গেছে বলে উল্লেখ করেছে সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট। গত ১৯ ফেব্রুয়ারি থেকে তাদের শেয়ারে ধ্বস নামতে শুরু করে।

ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি থেকে চীনা টেক জায়ান্ট আলিবাবা গ্রুপ হোল্ডিং, সংবাদমাধ্যম সাউথ চায়না মর্নিং পোস্টের মূল প্রতিষ্ঠান, টেনসেন্ট হোল্ডিংস, উইচ্যাটের মালিকের শেয়ার যথাক্রমে ১৯ শতাংশ থেকে ১৩ শতাংশ কমেছে। আলিবাবার প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক মা এবং টেনসেন্টের প্রতিষ্ঠাতা পনি মা হুয়াটেংকের ক্ষতি হয়েছে ১২.৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।

গত মঙ্গলবার ইনস্টিটিউট অফ ইন্টারন্যাশনাল ফিন্যান্স একটি প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে, জানুয়ারির শেষ দিক থেকে এই মহামারী অর্থনীতিতে প্রভাব ফেলতে শুরু করে। ফলে সম্ভাবনাময় বাজারে ৫৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ধ্বস নামে। যা ২০০৮ সালে বিশ্বব্যাপী ও ১৯৯৭-৯৮ সালে এশিয়ায় চলা আর্থিক সঙ্কটের দ্বিগুণের বেশি।

ফেব্রুয়ারির ১৯ তারিখের পর থেকে চীনের সবচেয়ে ধনী এবং আলিবাবার প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক মা ব্যক্তিগতভাবে ৬ দশমিক ৯ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। এরমধ্যে গত সোমবার ডোউ জোন্স ইন্ডাস্ট্রিয়াল এভারেজের শেয়ারের মূল্য ২.৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার হ্রাস পায়। এই বাজারের নিউইউয়র্ক ও হংকংয়ে আলিবাবার শেয়ারের লেনদেন হয়।

ব্লুমবার্গ বিলিয়নিয়ার ইনডেক্স অনুসারে, আলিবাবার শেয়ার মূল্য কমার সত্ত্বেও সাম্প্রতিক সময়ে তেলের দাম কমে যাওয়ায় জ্যাক মা ভারতীয় ধনকুবের মুকেশ আম্বানিকে ছাড়িয়ে গেছেন।

গতমাসে আলিবাবার নির্বাহী ভাইস চেয়ারম্যান এবং ব্রুকলিন নেটস বাস্কেটবল দলের মালিক জোসেফ সসাইয়ের সম্পদ ৩.৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার কমে গেছে।

চীনের দ্বিতীয় শীর্ষ ধনী টেনসেন্টের প্রতিষ্ঠাতা পনি মা হুয়াটেং। ফেব্রুয়ারির ১৯ তারিখের পর থেকে ৫ দশমিক ৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার সম্পদ হারিয়েছেন তিনি।  

চীন রিয়েল এস্টেট ডেভেলপার এভারগ্রান্ডের চেয়ারম্যান হুই কা-ইয়ান এই তালিকার তৃতীয় অবস্থানে আছেন। তিনি গতমাসে ৮ দশমিক ৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার সম্পদ হারিয়েছেন। বিশ্বের সবচেয়ে ধনী এই নির্মাতা চীনে জু জিয়ায়িন নামে পরিচিত। ২০১৯ সালেও তিনি লোকসানে ছিলেন। তখন তিনি ৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলার সম্পদ হারিয়েছিলন।

চীনের শীর্ষ ধনী নারী রিয়েল স্টেট ব্যবসায়ী ইয়াং হুইয়ান, ই-কমার্স সংস্থা পিন্ডুডুডিওর প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও কলিন হুয়াং এবং নেটইজের প্রতিষ্ঠাতা উইলিয়াম ডিং লেইও গত মাসে তাদের ব্যবসায়ে মারত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন। তবে, ক্ষতির পরিমাণ নিয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি তারা।

চীনের চল্লিশতম ধনী ব্যক্তি জেডি ডটকমের প্রতিষ্ঠাতা রিচার্ড লিউ কিয়াংডং গত এক মাসে তার সম্পদের প্রায় ২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বা এক-চতুর্থাংশ হারিয়েছেন। ফোর্বসের মতে, গত বছরের মার্চ মাসে তার মোট সম্পদ ছিল ১০ দশমিক ৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলার।